মোহাম্মদ হোসাইন

হিন্দু সাম্প্রদায়ের অনেকে নিজেদের সংখ‍্যালুগু মনে করেন, আসলে এটা আমাদের কোন পরিচয় হতে পারে না, আমাদের পরিচয় আমরা সবাই বাঙ্গালী বলে মন্তব্য করেছেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও বিদ্যুৎ বিভাগ পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক ইঞ্জিঃ মোহাম্মদ হোসাইন।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর, ২০২২)  বিকাল ৪ টা থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত হাজীগঞ্জ এবং শাহরাস্তির বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার সকল ধর্মের জন্য সমান অধিকার সু-নিশ্চিত করেছে। আমাদের হাজীগঞ্জ শাহরাস্তি শতবছরের অসাম্প্রদায়িক চেতনার একটা উৎকৃষ্ট জায়গা ছিলো, যার উপর কলঙ্ক লেপন করা হয়েছে গতবছরের পূজায়, আমরা সেই দূঃসহ স্মৃতি আর দেখতে চাই না এবং একটি কথা স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, যারা সেটি ঘটিয়েছে তোমাদের আর সেই সুযোগ আসবে না, যতদিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকবে আমরা তাঁর সৈনিক রা এ ধরনের উৎসবে কোন অপশক্তি কে এধরণের কর্মকান্ড করতে দিবো না।

শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে মঙ্গলবার হাজীগঞ্জ শাহরাস্তির বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে সংক্ষিপ্ত বক্ততৃতায় তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা সরকার দেশে সকল ধর্মের জন্য ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। ‘দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের উৎসবই নয়, এটি একটি সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। অশুভ শক্তির বিনাশ এবং সত্য ও সুন্দরের আরাধনা শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রধান বৈশিষ্ট্য।’

এসময় হাজীগঞ্জে উপস্থিত ছিলেন হিন্দু সাম্প্রদায়ের অন্যতম নেতা ও হাজীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা জনাব মিঠুন ভদ্র, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি জনাব নূর মোহাম্মদ পৌর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জনাব বাবু রাধাকান্ত দাস(রাজু), সাধারণ সম্পাদক বাবু শ্যামল সাহা, ৯ নং গন্ধর্ব্যপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জনাব আলহাজ্ব নূরুর রহমান বেলাল, ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব আবুল কালাম আজাদ, পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য, জনাব মোঃ ফারুক হোসেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক মাহবুব আলম, সাবেক ৯ নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি খোকন এবং উপজেলা ও পৌর সভার বিভিন্ন পূজামণ্ডপ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বৃন্দ।

শাহরাস্তি উপজেলা পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব কামরুজ্জামান মিন্টু, কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি জনাব মকবুল চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগে সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব বিল্লাল হোসেন তুষার, টামটা দঃ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জনাব মানিক ভূইয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব জাঙ্গার মোহাম্মদ আদেল, আওয়ামী লীগ নেতা জনাব পলাশ মজুমদার, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য হোসেন মীর, নেছার পাটওয়ারী, জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ইস্কান্দর মিয়া সুমন, সহ সভাপতি ফারুক আহমেদ, উপ সম্পাদক ওমর ফারুক, সদস্য সুমন মিয়াজী সহ উপজেলা আওয়ামী লীগ যুব লীগ ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন পূজামণ্ডপের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।