নিউজ ডেস্ক: ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর দেশটির নতুন রাজার মুকুট পড়লেন তার ছেলে যুবরাজ চার্লস। আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিটেনের নতুন রাজা হিসেবে ‘তৃতীয় চার্লসের’ নাম ঘোষণা করা হবে।

রানির মৃত্যুতে দেশটির নিয়ম অনুযায়ী উত্তরাধিকারী হিসেবে কোনো ধরনের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই ব্রিটেনের রাজা হন প্রিন্স চার্লস। ফলে তিনি এখন রাজা তৃতীয় চার্লস নামে পরিচিতি লাভ করবেন। রীতি অনুযায়ী আনুষ্ঠানিকভাবে রাজা হিসেবে তার নাম ঘোষণা করা হবে আজ।

ব্রিটেনের নতুন রাজা তৃতীয় চার্লস ব্রিটেন অস্ট্রেলিয়া এবং কানাডাসহ বিশ্বের ১৪টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের দায়িত্ব পালন করবেন। তাছাড়া ৫৬ সদস্য দেশের সংগঠন কমনওয়েলথেরও প্রধান হবেন তিনি৷

ব্রিটেনের রাজা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজা তৃতীয় চার্লস ব্রিটিশ সামরিক বাহিনীর সর্বময় ক্ষমতাবান, বিচার বিভাগের প্রধান এবং সিভিল সার্ভিসের প্রধান হয়েছেন৷

এর আগে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টায় বাকিংহ্যাম প্যালেস থেকে ব্রিটিশ জাতি ও কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর উদ্দেশে ভাষণ দেন তৃতীয় চার্লস। যা সরাসরি টিভিতে সম্প্রচারিত হয়।এ সময় প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের জন্য প্রার্থনা কামনা করেন চার্লস।

ভাষণে তিনি পুরো রাজপরিবারের পক্ষ থেকে গভীর শোকের অনুভূতি নিয়ে বলেন, তার মৃত্যুতে আমরা গভীর মর্মাহত। বুকে অনেক কষ্ট নিয়ে আজ আপনাদের সামনে কথা বলছি। পুরো রাজপরিবারের পক্ষ থেকে আমি গভীর শোকানুভূতি নিয়ে আপনাদের সঙ্গে মিলিত হয়েছি।

রাজা চার্লস সম্মান, মর্যাদা এবং ভালোবাসার সাথে ব্রিটেন ও কমনওয়েলথের জনগণের সেবা করার অঙ্গীকার করেন তার ভাষণে। তার মা রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তার রাজত্বের সূচনায় যে অঙ্গীকার করেছিলেন সেই একই অঙ্গীকার তিনি নবায়ন করতে চান।

তিনি বলেন, ‘রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ দারুণ একটা জীবন পার করেছেন। তিনি সবসময় তার লক্ষ্যে অবিচল ছিলেন। আমিও মায়ের মতো আমার লক্ষ্যে অবিচল থেকে জনগণের সেবা করতে চাই।

 

সূত্র: (বিবিসি)