আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের দাবি মিয়ানমারের অস্থিতিশীল করার পেছনে পশ্চিমাদের হাত রয়েছে। মিয়ানমারের বিভিন্ন বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে অস্ত্র সরবরাহের পেছনে বাইরের দেশের হাত রয়েছে বলে জানায় জান্তাপ্রধানের।

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীকে দায়ী করা হয়। এ ছাড়া স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির সরকারকে উৎখাত ও বিক্ষোভ দমন করতেও হত্যাকাণ্ড চালানোর অভিযোগ আছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে। তবে দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং বলছেন ভিন্ন কথা। তার দাবি, মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোকে অর্থ ও অস্ত্র দিচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো।

রাশিয়া সফরে গিয়ে বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) দেশটির বার্তা সংস্থা আরআইএকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পশ্চিমাদের দিকে আঙুল তুলে জান্তাপ্রধান বলেন, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে পশ্চিমারা।

যদিও মিয়ানমারের সংকট এখন সরকারের নিয়ন্ত্রণে আছে বলে দাবি করেছেন জান্তাপ্রধান। পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী বছর দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন আয়োজনে যা যা করা দরকার, সামরিক সরকার তা-ই করবে বলেও জানান হ্লাইং।