নুর উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ক্রমাগত বেড়েছে মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা। একের পর এক মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে চোরচক্র। গেল এক মাসে চুরি হয়েছে ১০ টিরও বেশী মোটরসাইকেল।

পর্যাপ্ত নিরাপত্তার পরও লাগাতার চুরি হওয়ায় আতঙ্কে আছে উপজেলার বাইক চালকরা।

গত জুলাই মাসে গভীর রাতে মোটরসাইকেল চুরির একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, চোর সিন্ডিকেটের দুই সদস্য মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। সিসিটিভি ফুটেজে বাইক নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য এবং চোরদের চেহারা শনাক্ত হলেও এখনও গ্রেফতার হয়নি তারা।

চুরি হয়ে যাওয়া মোটরসাইকেলের মালিক মাসুদ আলম বলেন, আমার বাসা থেকে একটি মোটর সাইকেল চুরি হয়ে যায়। এ বিষয়ে রায়পুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি এবং তাদের সিসি ক্যামেরা ফুটেজও দিয়েছি কিন্তু তারা এখনো চোরকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

তিনি আরও বলেন, বিগত ৬-৭ বছর ধরে মোটরসাইকেল ব্যবহার করে আসছি। কিন্তু এ ধরনের ঘটনা কোনদিন হয়নি। হঠাৎ করে রায়পুরে মোটরসাইকেল চুরি বেড়ে গেছে।

তাছাড়াও গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতেও রায়পুর পৌর শহরের একটি বাসা থেকে মোটরসাইকেল চুরির গঠনা ঘটেছে।

রায়পুরের স্থানীয় বাইকাররা জানায়, আমরা আমাদের শখের বাইক নিয়ে সব সময় আতঙ্কে থাকি। কখন বাইকটি চুরি হয়ে যায়। সব ধরনের সিকিউরিটি ব্যবহার করার পরও কয়েকবার ঘুম থেকে উঠে দেখি বাইকটি আছে কিনা।

এ বিষয়ে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিপন বড়ুয়া বলেন, মোটরসাইকেল চোরচক্রকে ধরতে আমরা কাজ করছি। ইতিমধ্যে দু’জন চোর’কো গ্রেফতার করা হয়েছে। চুরি ঠেকাতে রায়পুরে বিভিন্ন জায়গায় নতুন করে চেকপোস্টও বসিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা নিরাপত্তা আরও বৃদ্ধি করেছি। আশা করছি খুব শিগগির বাইক চুরি হ্রাস পাবে। চুরি হওয়া বাইকগুলো উদ্ধার এবং চোরচক্রকে ধরতে আমরা কাজ করছি। খুব শিগগির তারাও ধরা পড়বে।