হিমালয়ের পশ্চিম অংশে একাধিক পর্বতশৃঙ্গ আরোহণে যাচ্ছেন দুই বাংলাদেশি পর্বতারোহী সালেহীন আরশাদী ও ইমরান খান। অভিযানের শুরুতে আগামী রোববার ভারতের লাদাখের উদ্দেশে রওনা হবেন জানা গেছে।

১৫ দিনের এই অভিযানে কাং ইয়াৎসে-২ (৬২৫০ মিটার), জো জংগো (৬২৫০ মিটার), জো জংগো-ইস্ট (৬২০০ মিটার), রিগিওনি মালাই রি-১ (৬০৮০ মিটার) ও রিগিওনি মালাই রি-২ (৬০০০ মিটার) নামের ছয় হাজার মিটারের মোট পাঁচটি চূড়া আরোহণের পরিকল্পনা রয়েছে দুই পর্বতারোহীর।

অভিযান সম্পর্কে অভিযাত্রী সালেহীন আরশাদী বলেন, “পরিকল্পনা অনুযায়ী অভিযানটি সফল হলে এটি পর্বতারোহনের নতুন জাতীয় রেকর্ড হবে। কারণ এর আগে কোনো একক অভিযানে দুইটির বেশি ছয় হাজার মিটারের পর্বতারোহনের রেকর্ড নেই।”

‘গোযায়ান এক্সপেডিশন লাদাখ’ শিরোনামের অভিযানটি পর্বতভিত্তিক অ্যাডভেঞ্চার প্ল্যাটফর্ম অদ্রি আয়োজন করছে বলেও তিনি জানিয়েছেন। অভিযানটি উত্তর ভারতের লাদাখের মারখা উপত্যকায় অনুষ্ঠিত হব এবং দলটি লাদাখের রাজধানী লেহতে পৌঁছাবে সোমবার। লেহ শহরে দুদিন বিরতির পর দুই অভিযাত্রী বেইজক্যাম্পের উদ্দেশে ট্রেক শুরু করবেন।

ভ্রমণ বিষয়ক তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গোযায়ানের পৃষ্ঠপোষকতায় এ অভিযানে ট্রাভেলার্স অব বাংলাদেশ (টিওবি) ও অ্যাডভেঞ্চার ক্লাব দ্য কোয়েস্ট সহযোগী হিসেবে থাকছে।

উল্লেখ্য, সালেহীন আরশাদী দেশের ৩ হাজার ফুট বা তার চেয়ে উঁচু ১৮টি পাহাড়চূড়া মাপার অভিযানে নেমেছিলেন। পুরো কাজট শেষ করতে তার প্রায় এক দশক লেগে গিয়েছিল। এর মধ্যে তিনি তার তিন সহযাত্রীকে হারিয়েছেন এবং নিজেও গুরুতর আহত হয়ে শয্যাশায়ী ছিলেন বছরখানেক। এছাড়াও তিনি দেশ বিদেশে অসংখ্য ট্রেক সম্পন্ন করেছেন। এবার আরেক পর্বতারোহী ইমরান খান সহ যাচ্ছেন নতুন মাইলফলক ছুঁয়ে দেখতে।