ইআরকিউ হিসাবে

বাংলাদেশ ব্যাংক নির্ধারিত বেসরকারি খাতের ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য নতুন বেতন কাঠামো চলতি এপ্রিল মাস থেকেই বাস্তবায়ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০টি বেসরকারি ব্যাংক।

মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) ২০ ব্যাংকের বোর্ডের অনুমোদন সাপেক্ষে নতুন বেতন-ভাতা এপ্রিল থেকে দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ব্যাংকগুলোর মধ্যে রয়েছে- ডাচ-বাংলা ব্যাংক , সিটি ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, এবি ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, এসআইবিএল, ইউনিয়ন ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক এবং এক্সিম ব্যাংক। এছাড়া আরও সাতটি ব্যাংক কেন্দ্রীয় ব্যাংককে নতুন বেতন কাঠামো চালুর কথা জানালেও তাদের নাম পাওয়া যায়নি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বেধে দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, ব্যাংকের শিক্ষানবিশ কর্মকর্তাদের সর্বনিম্ন বেতন হবে ২৮ হাজার টাকা। তবে শিক্ষানবিশকাল শেষে কর্মকর্তাদের ন্যূনতম বেতন-ভাতা দিতে হবে ৩৯ হাজার টাকা ।

পাশাপাশি বেসরকারি ব্যাংকের নিরাপত্তা কর্মী, বার্তাবাহক, পরিচ্ছন্নতা কর্মীসহ অন্যদের সর্বনিম্ন বেতনও নির্ধারণ করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কর্মচারীদের প্রারম্ভিক বেতন-ভাতা হবে সর্বনিম্ন ২৪ হাজার টাকা।

এর আগে, ১২ এপ্রিলের মধ্যে ব্যাংকগুলোর বেতন কাঠামো বাস্তবায়নের অগ্রগতি জানাতে ৫২টি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে সম্প্রতি চিঠি পাঠায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ।

এর আগে, সর্বনিম্ন বেতন-ভাতা নির্ধারণ করে এ বছরের ২০ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে একটি সার্কুলার জারি করা হয় এবং তা সংশোধন করে পরবর্তীতে ১ ফেব্রুয়ারি আরেকটি সার্কুলার দেওয়া হয়।

এ নির্দেশনায় ব্যাংকের জেনারেল (সাধারণ) শাখার কর্মকর্তাদের সর্বনিম্ন ৩৯ হাজার এবং ক্যাশ শাখার কর্মকর্তাদের সর্বনিম্ন ৩৬ হাজার টাকা বেতন-ভাতা দিতে বলা হয়।

এছাড়া শিক্ষানবিশ কর্মকর্তাদের ন্যুনতম বেতন সাকুল্য ২৮ হাজার টাকা এবং ক্যাশ কর্মকর্তাদের ২৬ হাজার টাকা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।