পেশাগত ব্যস্ততার বাইরে গিয়েও নিজেদের মধ্যে সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি বাড়ানোর লক্ষ্যে এ বছর ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেছে ঘাটাইল ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীরা।

শনিবার ঢাকা মহাখালী রাওয়া ক্লাবে এই ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত ইফতার মাহফিলে সাবেক অধ্যক্ষ জনাব মোঃ মনোয়ার হোসেন, সাবেক অধ্যক্ষ লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব:)জি এম সারোয়ার , সাবেক অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কে এম আমিরুল ইসলাম এইসি এবং সাবেক সিনিয়র শিক্ষক মোঃ আব্দুল কাদের উপস্থিত হন এবং উনাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন প্রাক্তন সিনিয়র শিক্ষার্থীবৃন্দ।

সাবেক অধ্যক্ষ লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব:)জি এম সারোয়ার ইফতার মাহফিল আয়োজনের জন্য আয়োজক এবং উপস্থিত সকল ছাত্র-ছাত্রীদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতে বড় পরিসরে ঘাটাইল ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে রিইউনিয়ন করার জন্য সংক্ষিপ্ত কর্মপরিকল্পনা প্রদান করেন।

সাবেক অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমিরুল ইসলাম এইসি বলেন-আজকের এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে নিজেদের মধ্যে সোহার্দ্য সম্প্রীতি ও সম্পর্কের গভীরতা বাড়বে বলেই আমার বিশ্বাস।

এ সময় উক্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে সাবেক অধ্যক্ষ মনোয়ার সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করে বলেন- এই মহান পবিত্র রমজান মাসের পবিত্রতা বজায় রেখে সারা জীবন সবাইকে সততা এবং নিষ্ঠার সাথে বাংলাদেশের বিভিন্ন সেক্টরে কর্মরত প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীরা যেন তাদের দেশের স্বার্থে শ্রেষ্ঠ দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

এতে বিভিন্ন ব্যাচের প্রায় ৮০ ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেন। দীর্ঘদিন পর সবাইকে একসাথে পেয়ে খুনসুটিতে মেতে ওঠেন সবাই।

ইফতার মাহফিলে আরো উপস্তিত ছিলেন, ঘাটাইল ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্র এডভোকেট মো: নাজমুল, মো: সম্রাট এবং মাহমুদুল হাসান গাজ্জালী (ব্যবস্থাপনা পরিচালক জিএস ফার্মা ইন্টারন্যাশনাল লিঃ), খালেদ মহিউদ্দীন আলমগীর, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মাসুদ আহম্মেদ শিকদার, সাব্বির খান, মাসুদ কবির ও আরো অন্যান্য ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

জিএস ফার্মা ইন্টারন্যাশনাল লিঃ এর মহাপরিচালক মাহমুদুল হাসান গাজ্জালী বলেন, আজকের ইফতার মাহফিলের মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর আমাদের শ্রদ্ধেয় শিক্ষক মন্ডলী, সিনিয়র ভাই, বন্ধু ও জুনিয়র ভাইদের সাথে একত্রিত হতে পেরেছি এবং আগামী দিনে বড় পরিসরে ঘাটাইল ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে রিইউনিয়ন হবে বলে প্রত্যাশা করি।

ইফতারের আগে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়।