দেশ সমাচার ডেস্ক : করোনা অতিমারির কারণে বইমেলার পরিস্থিতি এবারও স্বাভাবিক ছিল না। গেলো দুদিন করোনায় মৃত্যুশূন্য ছিল দেশ। এছাড়া বইমেলায় আগের মতো লেখক-পাঠকদের উপচেপড়া ভিড় ছিল না। বলার অপেক্ষা রাখে না গেলোবারের চেয়ে ভালো ছিল এবারের বই মেলার পরিস্থিতি।

এতে করে পাঠক-লেখকদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছিল বইমেলা। তবে আজ ইতি ঘটছে সেই বই মেলার। অমর একুশে বইমেলা প্রতিবছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হলেও এবার ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শরু হয়েছে বইমেলা। বইমেলার মূল প্রতিপাদ্য ছিল-‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী’। এদিকে দুপুর ২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা ছিল বইমেলা।

তবে ছুটির দিনে খোলা ছিল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ এবং ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মেলায় মোট ৩৫টি প্যাভিলিয়নসহ একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০২টি প্রতিষ্ঠানকে ১৪২টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৪৩২টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৩৪টি ইউনিট; মোট ৫৩৪ টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৭৬ টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয় এবারের মেলায়।