আগামী মাসের মধ্যে তারা কোভিড-১৯ এর নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের ভ্যাকসিন বাজারে ছাড়্রার আশাবাদ করছে বিশ্বখ্যাত ঔষধ প্রস্তুতকারি প্রতিষ্ঠান ফাইজার। কোম্পানির প্রধান সোমবার এই কথা জানান।

ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলবার্ট বোরলা সিএনবিসি টেলিভিশনকে জানান, সরকারের সদৃচ্ছার কারণে ইতোমধ্যে ওমিক্রনের ভ্যাকসিন তৈরি শুরু করেছে। ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টসহ বিপুল সংখ্যক লোক কভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় কর্তৃপক্ষ ওমিক্রন আক্রান্তদের মাঝে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে ‘সাফল্যের’ দাবি করছে।
বোরলা সিএনবিসি’কে আরও জানান, ‘আগামী মার্চে এই ভ্যাকসিন তৈরি শুরু বাজারজাত করা হবে। আমাদের এই ভ্যাকসিন প্রয়োজন হবে কি-না, তা আমি জানি না। আমি জানি না কীভাবে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।’
তিনি আরও বলেন, ওমিক্রনে আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ লোকদের সুরক্ষায় দুই ধরনের ভ্যাকসিনের বুস্টার ডোজসহ পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে।
এছাড়া ওমিক্রনসহ ২০২২ সালের মধ্যে করোনার অন্য কোন ভ্যারিয়েন্ট দেখা দিলে তা মোকাবেলা করার জন্য বুস্টার ডোজ তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান মর্ডানার সিইও স্টিফেন বানচেল  কোম্পানি।

(সূত্র: বাসস)