৮ আগস্ট কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা

মাদ্রাসা: ফাইল ছবি

সারা দেশে ৮ আগস্ট থেকে সব কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা দিয়েছে আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ। যদিও এ  বিষয়ে সরকার অনুমতি দেয়নি। ধর্ম মন্ত্রণালয় বলছে, সরকারের অনুমতি ছাড়া খোলার কোনও সুযোগ নেই।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের কার্যালয়ে সংগঠনের কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল কুদ্দুছের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়, করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রায় সাড়ে চার মাস বন্ধ থাকার পর আগামী ৮ আগস্ট থেকে সারা দেশের সব কওমি মাদ্রাসা খুলবে। সংস্থার দফতর সম্পাদক অছিউর রহমানের স্বাক্ষরে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আরো পড়ুন- ঈদুল আজহা ১ লা আগস্ট

যদিও এর আগে দেশের সব হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও হিফজখানা ১২ জুলাই থেকে চালুর অনুমতি দিয়েছে সরকার। গত ৮ জুলাই ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে জারি করে, এসব মাদ্রাসাকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।

এর আগে গত ১ জুন দেশের কওমি মাদ্রাসায় ছাত্রছাত্রী ভর্তির কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে অফিস খোলার অনুমতি দেওয়া হয়।

আরো পড়ুন- ভোরের আলোয় রংধনুর রঙে ফুটে ওঠে যে মসজিদে

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের দফতর সম্পাদক অছিউর রহমান বলেন, ‘বৈঠকে দেশের খ্যাতনামা আলেমরা ছিলেন। সবার মতামতের ভিত্তিতে মাদ্রাসা চালুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর সংশ্লিষ্টরা এরমধ্যে আলাপ আলোচনা করবেন। সরকার এখনও অনুমতি দেয়নি। তবে যেহেতু ৬ আগস্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি শেষ হচ্ছে, তাই এ বিষয় বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’ সরকার অনুমতি না দিলেও মাদ্রাসা খুলবে বলে জানান অছিউর রহমান।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল ইসলাম বলেন, ‘কওমি মাদ্রাসা খোলার বিষয়ে কোনও অনুমতি দেওয়া হয়নি। যেহেতু সরকারের নির্দেশে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে, ফলে খুলতেও সরকারের অনুমতি লাগবে। সরকারের অনুমতি ছাড়া খোলা যাবে না।’

আরো পড়ুন- করোনায় এবারের হজ

 

Leave a Reply