হেফাজত নেতা কাসেমী আর নেই

কাসেমী

প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে চিকিৎসাধীন থেকে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী না ফেরার দেশে চলে গেলেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

আজ রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১টায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন তিনি।

নূর হোসাইন কাসেমীর প্রেস সচিব মুফতি মুনির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১ ডিসেম্বর শ্বাসকষ্টজনিত কারণে অসুস্থতাবোধ করলে আল্লামা কাসেমীকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাৎক্ষণিক তাঁকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। ঠাণ্ডা ও শ্বাসকষ্ট থাকলেও তাঁর কয়েক দফা করোনা পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

নূর হোসাইন কাসেমী হেফাজতে ইসলাম প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটির ঢাকা মহানগর সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন। সংগঠনের আমির আল্লামা আহমদ শফির মৃত্যুর পর গত ১৫ নভেম্বর নতুন করে কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটিতে আল্লামা বাবুনগরীকে আমির ও নূর হোছাইন কাসেমীকে মহাসচিব নির্বাচিত করা হয়।

একাধারে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব, আল হাইআতুল উলয়ার সহ-সভাপতি, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা ঢাকা ও জামিয়া সোবহানিয়া মাহমুদ নগরের শায়খুল হাদিস ও মহাপরিচালক ছিলেন নূর হোসাইন কাসেমী। হেফাজত আন্দোলন, খতমে নবুয়ত আন্দোলনসহ প্রভৃতি আন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব স্থানীয় ভূমিকা পালন করেছেন এবং ইসলামী নেতা হিসেবে মুসলিম জনসাধারণের মধ্যে তাঁর পরিচিতি রয়েছে। এছাড়া তিনি প্রায় ৪৫টি মাদ্রাসা পরিচালনার কাজে যুক্ত ছিলেন।

আরও পড়ুন- আল্লামা আহমদ শফী আর নেই

Leave a Reply