হিলিতে সিএন্ডএফ

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর ও কাস্টমস কর্তৃক সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের সদস্যদের সমস্যা সমাধানে সাংবাদ সন্মেলন করেছে বাংলাহিলি কাস্টমস সিআ্যন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কমিটি। এসময় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে প্রতিবন্ধকতাগুলো সমাধান করে বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বৃদ্ধিসহ রাজস্ব আহরণ বাড়ানোর উপর গুরুত্ব দেয়া হয়।

বাংলাহিলি কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে শনিবারে অ্যাসোসিয়েশনের নিজস্ব কার্যালয়ে এই সাংবাদ সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাহিলি কাস্টমস সিআ্যন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত।

এসময় তিনি বলেন, হিলি স্থলবন্দরের ভেতরের ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নয়ন, ওজন স্টেশনে সঠিক ওজন পাওয়ার ব্যবস্থা গ্রহন, আমদানিকৃত পণ্যের নাইট চার্জের বিষয়ে আলোচনা স্বাপেক্ষে সিন্ধান্ত, আমদানিকৃত কাঁচাপণ্যের জন্য আলাদা স্থান নির্ধারণ, বন্দরের অভ্যন্তরে আমদানিকৃত মালামাল চুরি রোধ কল্পে আলোচনা সাপেক্ষ সিন্ধান্ত গ্রহন, ভারতীয় খালি ট্রাক রাখার জন্য স্থান নির্ধারণ, বন্দরের ভেতরে ওয়্যার হাউজের শেড নির্মাণ করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ওপেন ইয়ার্ডে শেড নির্মাণ, বন্দরের অভ্যন্তরে যানজট নিরসন কল্পে কর্মপরিকল্পনা গ্রহন, দেশের অন্যান্য সকল স্থলবন্দরের ন্যায় হিলি স্থলবন্দরে ব্যবসা বানিজ্য তরান্বিত করন, পানামা, স্থলবন্দর ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে এসব বিষয়ে সিন্ধান্ত ও পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুর রহমান লিটনের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন, সহসভাপতি আব্দুল আজিজ, শাহিনুর রেজা, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক হানিফ লস্কর, জাবেদ হোসেন রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুশান্ত কুমার দাস, বন্দর বিষয়ক সম্পাদক রবিউল ইসলাম সুইটসহ ২৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সদস্যরা।