হঠাৎ ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

 ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ
ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দো ফিলিপ

অনেকদিন ধরেই জল্পনা ছিল , করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্থ অর্থনীতির চাকা সচল করতে মন্ত্রিপরিষদে রদবদলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। সেই জল্পনা সত্যি করেই হঠাৎ করে পদত্যাগ করলেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দো ফিলিপে এবং তার মন্ত্রিসভা। আজ শুক্রবার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর সরকারের হয়ে তিন বছর প্রধানমন্ত্রী থাকার পর সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফিলিপে।

গুঞ্জন রয়েছে, করোনাভাইরাসের ধকল কাটিয়ে ওঠার জন্য মন্ত্রিপরিষদে রদবদল করতে পারেন ম্যাখোঁ।

তবে ম্যাখোঁর তরফ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো সিদ্ধান্ত জানানোর আগেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলেন ফিলিপে। তবে নতুন মন্ত্রিপরিষদ গঠনের আগে পর্যন্ত সরকারি দায়িত্বে থাকবেন তিনি।

অবশ্য পদত্যাগের বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ-র সঙ্গে আলোচনা করেছেন ফিলিপে। ম্যাখোঁ তাতে সমর্থন করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের কাছে পাঁচ বছরের মেয়াদে সরকার ঢেলে সাজানো কিংবা অন্তত একবার প্রধানমন্ত্রী বদলানো নতুন নয়।

লকডাউন শেষে মন্ত্রিসভা রদবদলের আলোচনা শুরু হয়। যেকোনো মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করতে পারেন, তা বলা হচ্ছিল ফ্রান্সের মূলধারা রাজনীতিতে। অবশেষ শুক্রবার সকালে তিনি পদত্যাগ করলেন। ফরাসী পত্রিকা লু-পারিজিয়ার তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোন ও প্রধানমন্ত্রী এ্যডওয়ার্ড ফিলিপ এলিজি প্রাসাদে সাক্ষাতে মিলিত হন। ওই বৈঠকেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত হয় এবং শুক্রবার সকালে পদত্যাগের ঘোষণা আসে।

আরো পড়ুন- যেমনটি চেয়েছিলেন পুতিন…

1 মন্তব্য

Leave a Reply