ফিলিস্তিনের হামাসের সামরিক শাখা ইজাদ্দিন আল-কাসসাম ব্রিগেড দাবি করেছে, তারা ইসরাইলের সেনাভর্তি একটি বাসে ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়েছে।

আজ (বৃহ্পতিবার) সকালে সেনাভর্তি বাসে ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলার পরপরই ওই স্থানে ব্যাপকভাবে মর্টারের গোলা নিক্ষেপ করা হয়। ইসরাইলি সামরিক বাহিনী বলেছে, ওই বাস খালি ছিল এবং একজন মাত্র সেনা সামান্য আহত হয়েছে।

ইসরাইলের দক্ষিণাঞ্চলে রকেট হামলার সাইরেন বাজানোর পর সেনাভর্তি বাসে হামলার খবর এলো। এর আগে আট ঘণ্টা পর্যন্ত কোনো রকেট হামলা হয় নি।

এদিকে, ইসরাইলি ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মিডিয়া খবর দিচ্ছে যে, শুক্রবারের মধ্যে যুদ্ধবিরতি হতে পারে। এর আগে হামাসের উপ প্রধান আবু মুসা মারজুক জানিয়েছিলেন, দুই একদিনের মধ্যে যুদ্ধবিরতি হতে পারে। গাজা উপত্যকায় বর্বর আগ্রাসন চালানোর জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইল আন্তর্জাতিক অঙ্গনে চাপ ও সমালোচনার মুখে রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ- পরমাণু সহায়তা নিয়ে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু চীন-রাশিয়ার