শীর্ষে বেক্সিমকো

বেসরকারি খাতের প্রথম শরীয়াহ ভিত্তিক বেক্সিমকো গ্রিন সুকুক বন্ড এর আবেদন গ্রহণ শেষ হলো। গত ১৫ ডিসেম্বর কোম্পানির হিসেবে সব টাকা জমা হয়েছে। ফলে খুব শিগগির দেশের পুঁজিবাজারে চালু হতে যাচ্ছে প্রথম সুকুক বন্ডের লেনদেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিএসইসি সূত্র মতে, প্রতিষ্ঠানটি ৫ বছর মেয়াদি সুকুক বন্ড ছেড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা সংগ্রহ করে। এ টাকায় বেক্সিমকো তাদের টেক্সটাইল ব্যবসা সম্প্রসারণ করবে। পাশাপাশি নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ উৎপাদনের দুটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। বেসরকারি পর্যায়ে এটিই প্রথম সুকুক বন্ড। এর আগে সুকুক বন্ড ছেড়ে সরকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ৮ হাজার কোটি টাকা সংগ্রহের উদ্যোগ নেয়। এরই মধ্যে দুই দফায় সেই অর্থ সংগ্রহ করা হয়েছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, দেশের ইতিহাসে বেসরকারি খাতে প্রথম হলো বেক্সিমকো গ্রিন সুকুক। এটা নিয়ে বাজারে অনেক ধরণের নেতিবাচক প্রচারনা ছিলো। কিন্তু সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে পুরো ৩ হাজার কোটি টাকার আবেদন জমা পড়েছে। ফলে এর ইতিবাচক প্রভাব বাজারে পড়বে বলে মনে করেন তারা।

সুকুকের বিষয়ে বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক ড. শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, পুঁজিবাজারে আরও একটি নতুন ইতিহাস রচিত হলো। নতুন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই পুঁজিবাজারে পণ্যের বৈচিত্র নিয়ে কাজ শুরু করেছে। এটি তার ফল। এর মাধ্যমে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের বিকল্প একটি পণ্য চালু হলো। আগামীতে আরও অনেক সুকুক আসবে।

তিনি বলেন, বাজারে আরও নতুন পণ্য নিয়ে আসতে কাজ করছে কমিশন। আশা করছি সবার সহযোগিতার মাধ্যমে পুঁজিবাজার একটি কাংখিত লক্ষ্যে পৌছবে। দেশের আর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে পুঁজিবাজার বড় ধরণের ভূমিকা পালন করবে।