সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ
রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ
রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ আত্মগোপনে যাওয়ার পাঁচ দিন পরেও গ্রেপ্তার করতে পারেনি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে তার পাসপোর্ট জব্দ করেছে র‌্যাব।

র‌্যাবের মিড়িয়া উইংয়ের পরিচালক আশিক বিল্লাহ জানান, সন্ধ্যার আগে উত্তরায় রিজেন্টের অফিস থেকে সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। তার এই পাসপোর্টের মেয়াদ ২০২৪ সাল পর্যন্ত রয়েছে।

সাহেদকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে অগ্রগতি জানতে চাইলে র‌্যাবের গোয়েন্দা প্রধান সারওয়ার বিন কাশেম রাতে বলেন, “আমাদের ৫-৬টি টিম কাজ করছে,।” তাকে গ্রেপ্তারে যথেষ্ট চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তবে তার অবস্থান এখনও শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

আরো পড়ুন- রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

“সাহেদ কারও না কারও সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলছে। বসে নেই। কার সাথে তার যোগাযোগ চলছে, সেই পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।”

সাহেদ দেশে আছেন না কি দেশের বাইরে চলে গেছেন- এ প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা বলেন, “তার দেশের বাইরে যাওয়ার সম্ভবনা খুব কম। সর্বত্র নজদারি রয়েছে।”

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা না করে ভুয়া প্রতিবেদন দেওয়ার ‘প্রমাণ পেয়ে’ গত ৬ জুলাই উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে আরও অনিয়ম ধরা পড়ার পর উত্তরা ও মিরপুরে রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আরো পড়ুন- এবার রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও সিলগালা !