সার কেনার সিদ্ধান্ত

সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি (সিসিজিপি) দেশের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে আরও ৯০ হাজার টন সার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার ও ৮০ হাজার টন হাই সালফার ফার্নেস ওয়েল আমদানির জন্য পৃথক প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। গেলো বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত চলতি বছরের সিসিজিপি’র ৩৭তম বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এই বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন।

ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শামসুল আরেফিন সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে বলেন,  ‘জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের অধীন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি)  ইউনিপেক সিঙ্গাপুর পিটিই লিমিটেড থেকে চলতি বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বর সময়ের জন্য প্রায় ৩৬৫.১৩ কোটি টাকার  ৮০ হাজার টন হাই সালফার ফার্নেস ওয়েল আমদানি করবে।’

তিনি বলেন, ‘এছাড়া শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি)  সৌদি আরবের সৌদি বেসিক ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (এসএবিআইসি) থেকে প্রায় ১৯৪.৯৭ কোটি টাকার আরও ৩০ হাজার টন বাল্ক দানাদার ইউরিয়া সার সংগ্রহ করবে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড থেকে প্রায় ১৯৪.৯৭ টাকার আরও ৩০ হাজার টন বাল্ক দানাদার ইউরিয়া সার ক্রয় করা হবে। এছাড়া বাকি ৩০ হাজার টন ব্যাগযুক্ত দানাদার ইউরিয়া সার ১৯৭.৭৯ কোটি টাকা ব্যয়ে    কাতারের মুনতাজাত থেকে আমদানি করা হবে।’

আরেফিন বলেন, ‘বিসিআইসি এম/এস অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনপুট, ঢাকা (প্রধান সরবরাহকারী: এম/এস সান ইন্টারন্যাশনাল এফজেডই, ইউএই) থেকে প্রায় ৬১.৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে  ১০ হাজার টন ফসফরিক অ্যাসিড আমদানি করবে।