দেশে আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার সময় বজ্রপাতে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় জামালপুরে ছয়জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিনজন ও সিলেটে একজনের মৃত্যু হয় বলে জানাগেছে। জামালপুরের ইসলামপুরে পৃথক বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। বিকালে উপজেলার পাথর্শী, গাইবান্ধা, সাপধরী ও পলবান্ধা ইউনিয়নে বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ার সময় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়। এসব এলাকায় আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের আব্দুস সাত্তারের ছেলে কৃষক মো. জালাল উদ্দিন (৩৭), চাঁদপুরের আবু তালেবের স্ত্রী রহিমা খাতুন এবং নাচোল উপজেলার আঝোইড় গ্রামের ওবাইদুর রহমানের মেয়ে মারুফা খাতুন (০৯)।

নিহত আরও ব্যাক্তিরা হলেন- পাথর্শী ইউনিয়নের জারুলতলা এলাকার এনামুল, কালা শেখ ও শাহ জামাল; সাপধরী ইউনিয়নের প্রজাপতির চর এলাকার বিল্লাল; গাইবান্ধা ইউনিয়নের চন্দনপুর গ্রামের মফিজল হক এবং পলবান্ধা ইউনিয়নের দক্ষিণ বাটিকামারী গ্রামের জাবেদ আলী।

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় বজ্রপাতে বাবুল মিয়া (৩৩) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মারা যান। নিহত বাবুল উপজেলার কাকুনাখাই গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে।

ওদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ ও নাচোল উপজেলায় বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত পৃথক বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়।