বাংলাদেশের

বাংলাদেশের মানুষ ফিলিস্তিনের প্রতি সহমর্মিতার হাত প্রসারিত করায় বাংলাদেশের মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন দেশটির রাষ্ট্রদূত ইউসেফ রামাদান।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের সংকটে বাংলাদেশের মানুষের এমন অভূতপূর্ব সাড়া পেয়ে আমরা সত্যি অবাক। কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি প্রত্যেকটি মানুষের প্রতি।

সোমবার সন্ধ্যায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, বাংলাদেশের আর্থিক সহযোগিতার কথা অবশ্যই আমার দেশের মানুষ জানবে। এই আর্থিক সহযোগিতা আমরা চিকিৎসা খাতে ব্যয় করতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা স্বাধীন ভূখণ্ডে একদিন ফিরবো। বাংলাদেশের মানুষের সহযোগিতার কথা আমরা তখনও কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করবো।

সম্প্রতি, বাংলাদেশের পাসপোর্ট থেকে ‘ইসরায়েল’র প্রতি বিধিনিষেধের কথা উঠিয়ে নেয়া প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত বলেন, এ ঘটনায় আমরা খুশি হতে পারিনি কিন্তু এটা বাংলাদেশের সিদ্ধান্ত। আমি এটাকে রাজনৈতিকভাবে দেখতে চাই না। বিষয়টিকে বাংলাদেশের সরকারকে আবারো বিবেচনার অনুরোধ জানান রামাদান।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশে অবস্থিত দূতাবাস গাজার মানুষকে প্রতিনিধিত্ব করে না’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এমন বিতর্কের কোনো ভিত্তি নেই। আমরা কাউকেই জোর করছি না ফিলিস্তিনের পক্ষে অর্থ সহযোগিতার জন্য। তবে প্রত্যেক সহযোগিতার ডকুমেন্টশন রাখা হচ্ছে, যেটা আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে মনে রাখবো। শুধুমাত্র বাংলাদেশে থেকেই নয় বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিরাও আমাদের আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। যেটা আমরা কখোনই ভুলব না। বাংলাদেশের মানুষ সত্যিই অসাধারণ।

আরও পড়ুনঃ- গাজায় সামরিক মহড়া চালাল হামাস