কিডনি

শরীরে নির্গমনকারী অঙ্গানুসমূহের মধ্যে কিডনি অন্যতম। প্রস্রাব তৈরি এবং নির্গমণ, শরীরের জন্য ক্ষতিকারক (ইউরিয়া, ইউরকি এসডি, ক্রিয়েটিন) বর্জ্য পদার্থ বের করে দেয়, কিছু গরুত্বপূর্ণ হরমোন রেনিন, এরিথ্রোপোয়েটিন, ক্যালসিট্রাইওল উৎপন্ন করে দেহের বিভিন্ন মেটাবলিক কাজ নিয়ন্ত্রণ করে।

শরীরে দুইটি কিডনি দিয়ে মিনিটে ১১০০ মিলিলিটার রক্ত চলাচল করে। কিডনি ছাঁকনির সাহায্যে গড়ে ১.৫ লিটার প্রস্রাব দিনে নির্গমণ করে এবং এর গন্ধ অনেকটা অ্যামোনিয়ার মতো হয়। তবে বাংলাদেশের খাদ্যাভ্যাস, চাল-চলন, শারীরিক অবস্থা, আমোদ জীবনযাপনের কারনে ধীরে ধীরে শরীরের অত্যন্ত গরুত্বপূর্ণ অঙ্গানু বিকল হয়ে যাচ্ছে।

কিডনি বিকল নির্ণয়ে সুুনির্দিষ্ট মেডিকেল চেকাপ Serum  creatinine পরীক্ষাটি সহ আরো মেডিকেল চেকাপ করাতে হয়। Serum  creatinine এর নরমাল লেবেল পরুষের ক্ষেত্রে ০.৭ থেকে ১.৪ এমজি বা ডিএল নারীদের ক্ষেত্রে ০.৫ থেকে ১.০ এমজি বা ডিএল ক্রিয়েটেনিনের মান বাড়লে Acute or chronic renal failure হয় আর কমলে liver failure হয়।

আপনার ক্রিয়েটেনিনের মান বাড়লে বা কমলে কোন ধরনের খাদ্যাভ্যাস গ্রহন করবেন এবং ত্যাগ করবেন।

যেসব ফল খেতে পারবেন : 

  • যেসব ফল খেতে পারবেন : পেয়ারা, আপলে, পেপেঁ, নাসপাতি, বেল, আনারস, কামরাঙ্গা ও জাম্বুরা।
  • যেসব সবজি খেতে পারবেন : কাঁচা পেপেঁ, পটল, করলা, লাউ, চালকুমড়া, সজনে, মিষ্টি কুমড়া, শশা, গাঁজর আলু।
  • যেসব সবজি খেতে পারবেন সিদ্ধ করে পানি ফেলে : আলু, কাঁচা কলা, ডাটা, সজনে, টমেটো, কলার মোঁচা।
  • যেসব সবজি খেতে পারবেন না : কচুঁ, মূলা, কাঁঠালের বিচি, শিমের বিচি, ফুলকপি, বাঁধাকপি, ঢেড়স, বরবটি, মিষ্টি আলু ও পেয়াঁজের ডাটা।
  • যেসব শাক খেতে পারবেন : লাল শাক, কলমি শাক, ডাটা শাক।

বিশেষ করে কিছু বিষয় এড়িয়ে চলতে হবে : 

  • ইচ্ছেমতো ডাবের পানি খাবেন না
  • ডাল বা মটড় শুটি খাবেন না (তবে ডালের উপরের পানি খেতে পারবেন)।
  • আচার, চাটনি, কৌটাজাত খাদ্য, কোমল পানীয় খাবেন না।
  • খাবারে আলাদা লবন খাবেন না।
  • ইচ্ছেমতো সালাদ খাবেন না।
  • বেশি ইউরকি এসডি জাতীয় খাবার পরহিার করতে হবে। যেমন : গরু, খাসি, হাসেঁর মাংস, কলিজা, চিংড়ি মাছ, ঘন ডাল, মাছের ডিম, কচুঁ, কমলা ও আম।
  • পরিস্থিতি অনুযায়ী ৯০০-১৫০০ মিলি (দৈনিক) পানি পান করুন।

আরো দেখুন : https://www.deshshamachar.com