রাষ্ট্রদূত

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে দূতাবাস ভবনে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না । বুধবার রাষ্ট্রদূত কিয়াও জাওয়ার মিন নিজেই জানান এ তথ্য।

লন্ডনে দূতাবাসের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় কিয়াওকে। মিয়ানমারের জান্তার নির্দেশে তার ডেপুটি চিট উইন দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন বলে নিশ্চিত করেছে বেশ কয়েকটি সূত্র। দূতাবাস ভবনে প্রবেশ করতে না দেয়ার ঘটনাকে ‘এক ধরনের ক্যু’ হিসেবে আখ্যা দেন তিনি।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব, সাহসী হিসেবে কিয়াও এর প্রশংসা করেছেন। মিয়ানমারের সেনা ও সংশ্লিষ্ট কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর জারি আছে ব্রিটেনের নিষেধাজ্ঞা।

গত মাসেই নিজ দেশে সামরিক অভ্যুত্থান নিয়ে কথা বলেন সাবেক সামরিক কর্মকর্তা কিয়াও। বন্দি নেত্রী অং সান সুচি ও প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের মুক্তির দাবি জানান তিনি। দেশে গৃহযুদ্ধ শুরু হতে পারে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন:- মিয়ানমারে আরও ৭ বিক্ষোভকারী নিহত

যুক্তরাজ্যে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াও জোয়ার মিন বলেন, লন্ডনে দাঁড়িয়ে এটা এক ধরণের অভ্যুত্থান। তারা আমার কার্যালয় দখল করে রেখেছে। আমি এখানে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত। আমার ভিতরে যাওয়া প্রয়োজন। সেজন্যই ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের নির্দেশনার অপেক্ষায় আছি।