রোজা

মাহে রমজান আমাদের মাঝে এসে একদিন পার হয়ে গেলো । বিশ্বের সমগ্র মুসলিম জাতি রমজানের রোজা পালন করে থাকেন। কিন্ত যারা রমজানে যারা অসুস্থ আছেন তাদের জন্য ইসলাম ছাড় দিয়েছে।

চলমান পবিত্র মাহে রামজানের জন্য লিভারের রোগ আক্রান্ত রোগীদের জন্য বিশেষ পরামর্শ দিয়েছে হেপাটোলজি সোসাইটি বাংলাদেশ।

তবে জেনে নেওয়া যাক কেন রমজানে লিভারের রোগ আক্রান্ত রোগীদের জন্য রোজা রাখা ঝুঁকিপূর্ণ:

# উপসর্গযুক্ত জণ্ডিস বা একিউট হেপাটাইটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য।

# ডায়াবেটিস আছে এবং হাইপোগ্লাইসেমিয়া হবার ঝুঁকি আছে জন্য রোজা রাখা ঝুঁকিপূর্ণ।

# রক্তবমি অথবা কালো পায়খানা হচ্ছে।

# লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত ব্যক্তি যাদের বর্তমানে পেটে পানি অথবা জন্ডিস রয়েছে।

# খাদ্যনালীতে ব্যান্ড বা ইডিএল (EVL) এর মাধ্যমে চিকিৎসা করা হয়েছে – যাদের কথাবার্তা বা আচরণে অসংলগ্নতা দেখা যাচ্ছে।

# লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যক্তি যাদের লিভারের কার্যক্ষমতা ক্ষতিগ্রস্থ।

আরও পড়ুন:- করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু

যারা রোজা রাখতে পারবেন:

# হেপাটাইটিস ‘বি’ ভাইরাস বাহক (HBsAg + Carrier) ব্যক্তিরা।

# লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত ব্যক্তি যারা প্রাথমিক পর্যায়ে আছেন এবং উপরে উল্লেখিত লক্ষণসমূহ নেই।

# ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য রোজা রাখা লাভজনক।

# লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত ওইসব ব্যক্তি যাদের লিভার স্বাভাবিকভাবে কার্যক্ষম রয়েছে।

# ক্রনিক হেপাইটির বি ও ক্রনিক হেপাটাইটিস সি রোগে আক্রান্ত।

# লিভার ট্রান্সপ্লান্ট গ্রহীতারা দক্ষ লিভার বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে থেকে রোজা রাখতে পারবেন।

# গিলবার্ট সিনড্রোমে আক্রান্ত ব্যক্তি নিয়মিত সিরাম বিলিরুবিন মনিটরিংয়ের মাধ্যমে রোজা রাখতে পারবেন।

সূত্র: ডক্টর টিভি।