রাশিয়া ভ্যাকসিন দিতে চায়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আইনগত ব্যবস্থা
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

করোনাভাইরাসের ২০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) ভারত থেকে বাংলাদেশে আসছে। বুধবার (২০ জানুয়ারি) পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে কন্ট্রাক্ট ফার্মিং- বিষয়ক এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ খবর জানিয়েছিলেন।

পরবর্তীতে বিকেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক সংশোধনী বক্তব্য দিয়ে মন্ত্রী এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মন্ত্রী ৩৫ লাখ ডোজের কথা বলেছিলেন। তবে বৃহস্পতিবার ভারতীয় দূতাবাসের পক্ষ থেকে ২০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাচ্ছে বাংলাদেশ। বেক্সিমকো প্রথম দফায় আনবে ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন।

তিনি জানান, ভারত উপহার হিসেবে করোনার ২০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন বাংলাদেশকে দেবে। এছাড়া চুক্তির আওতায় প্রথম চালান হিসেবে ১৫ লাখ ভ্যাকসিন দেশে আসবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও জানান, আগামীকাল সব মিলিয়ে ৩৫ লাখ ভ্যাকসিন দেশে আসবে। দেশে ভ্যাকসিন আসার পরই তা দেওয়ার কর্মসূচি শুরু হবে।

ভ্যাকসিনের কর্মসূচি ধারাবাহিকভাবে চলতে থাকবে জানিয়ে তিনি আরও জানান, ভ্যাকসিন পাওয়ার বিষয়ে আমরা এখন যথেষ্ট নিশ্চিত।

আরো পড়ুন- ট্রাম্পের ১৫ পদক্ষেপ বাতিল করলেন বাইডেন

রাশিয়া, চীনসহ আরও কয়েকটি দেশ বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন দেওয়ার বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানান আব্দুল মোমেন। তিনি জানান, রাশিয়া অনেক ভ্যাকসিন দিতে চায়। এই দলে চীনও আছে।

চীন কোনো উপহার দিচ্ছে কি না, সে সম্পর্কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এই বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারছি না।

1 মন্তব্য

Leave a Reply