যুদ্ধাপরাধী আজহারের মৃত্যুপরোয়ানা কাশিমপুর কারাগারে

জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলাম

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলামের মৃত্যুপরোয়ানা কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার দিবাগত রাত ১১টা ১০মিনিটে গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে লাল কাপড়ে মোড়ানো মৃত্যু পরোয়ানাটি পৌঁছে।

ওই কারাগারের জেলার দেবদুলাল কর্মকার গণমাধ্যমকে জানান, কারাগারে মৃত্যুপরোয়ানাটি এটি এ টি এম আজহারুল ইসলামকে পড়ে শোনানো হবে। এরপর আইনজীবীরা সাক্ষাৎ করে তার সিদ্ধান্ত জানতে পারবে।নিয়ম অনুযায়ী, এখন তিনি ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে রিভিউ আবেদন করতে পারবেন। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে এই আবেদন না করলে যেকোনো দিন রায় কার্যকর হতে পারে।

এর আগে মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলামকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। গত ৩১ অক্টোবর রায় ঘোষণা করেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ। ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেওয়া রায়ে ২ নম্বর, ৩ নম্বর এবং ৪ নম্বর অভিযোগে ফাঁসির দণ্ডাদেশ পেয়েছেন আজহার।

এ ছাড়া ৫ নম্বর অভিযোগে অপহরণ, নির্যাতন, ধর্ষণসহ অমানবিক অপরাধের দায়ে ২৫ বছর ও ৬ নম্বর অভিযোগে নির্যাতনের দায়ে ৫ বছর কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। আর আপিল বিভাগের রায়ে ২, ৩, ৪ নম্বর অভিযোগে (সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে) ও ৬ নম্বর অভিযোগে দণ্ড বহাল রাখেন। আর ৫ নম্বর অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেওয়া হয়।

Leave a Reply