মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া প্রতিবাদ বাংলাদেশের

মার্কিন

বাংলাদেশে আল কায়েদার উপস্থিতি নিয়ে করা মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও’র মন্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘ সেখানে উল্লেখ করা হয়, পম্পেও বলেছেন বাংলাদেশ এমন একটি জায়গা যেখানে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল-কায়দা হামলা চালিয়েছিল, ভবিষ্যতে এমন হামলার আরও আশঙ্কা রয়েছে। একজন সিনিয়র নেতার এমন দায়িত্বহীন মন্তব্য দুঃখজনক ও অগ্রহণযোগ্য।’

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘যদি এ ধরনের বক্তব্য প্রমাণসহ উপস্থাপন করা হয়, তবে বাংলাদেশ সরকার আনন্দের সঙ্গে প্রয়োজনীয় প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তবে, যদি কোনও ধারণার ওপর ভিত্তি করে এ মন্তব্য করা হয়, তাহলে এটি অত্যন্ত দুঃখজনক হবে। বিশেষ করে যখন দুই দেশের সম্পর্ক, মূল্যবোধ, শান্তি ও উভয়ের জন্য প্রযোজ্য লক্ষ্যের ওপর ভিত্তি আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে।’

আরও আরও বলা হয়, ‘বাংলাদেশ এ ধরনের ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বক্তব্য দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করে। বাংলাদেশে আল কায়েদার অবস্থান সম্পর্কে কোনও প্রমাণ নেই।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদের প্রতি বাংলাদেশ জিরো টলারেন্স মনোভাব পোষণ করে এবং এটি প্রতিরোধের জন্য সবধরনের উদ্যোগ ও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। সরকার মনে করে, বাংলাদেশে আল কায়েদার কর্মকাণ্ড আছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন মন্তব্য ভিত্তিহীন এবং এ সম্পর্কে কোনও প্রমাণ নেই।’

আরও পড়ুন- এবার বন্ধ ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল

উল্লেখ্য, গত ১২ জানুয়ারি ওয়াশিংটন প্রেস ক্লাবে এক বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এ মন্তব্য করেন।

1 মন্তব্য

Leave a Reply