ভারত সীমান্তে নেপালের সেনা মোতায়েন

ভারত সীমান্তে নেপালের সেনা মোতায়েন
ফাইল ছবি

ভারত-চীন চলমান সীমান্ত সংঘাত ও উত্তেজনার মধ্যে লিপুলেখ সীমান্ত এলাকায় নেপাল সেনা মোতায়েন করেছে। নেপাল সরকারের নির্দেশে ভারতের উত্তরাখণ্ডের লিপুলেখ এলাকার কালাপানি উপত্যকায় কর্তব্যরত ভারতীয় সেনা জওয়ানদের ওপর নজরদারি শুরু করেছে নেপালি বাহিনী।

ভারত, চীন ও নেপালের মধ্যে ত্রি-সংযোগ এলাকায় লিপুলেখের অবস্থান। এটি উত্তরাখণ্ডের কালাপানি উপত্যকার উপরের অংশে অবস্থিত। সম্প্রতি নেপালের কেপি শর্মা ওলি সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নেপাল আর্মড পুলিশ ফোর্সের (এনএপিএফ) কাছে একটি নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- ভারতের জিডিপি-তে রেকর্ড ধস নেমেছে

আরও পড়ুন- ভারতের পিলার গুড়িয়ে দিল নেপালিরা!

সম্প্রতি নেপাল সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নেপাল আর্মড পুলিশ ফোর্সের (এনএপিএফ) কাছে একটি নির্দেশিকা পাঠানো হয়। ওই নির্দেশিকায় উত্তরাখণ্ডের কালাপানি উপত্যকায় থাকা ভারত, চীন ও নেপালের সীমান্তে আরও ‘এনএপিএফ’ মোতায়েন করতে বলা হয়েছে। ওই বাহিনী কর্তব্যরত ভারতীয় সেনা জওয়ানদের উপরে নজরদারি চালাবে। এরপরেই লিপুলেখ সীমান্তে নেপাল আর্মড পুলিশ ফোর্সের ৪৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ানকে মোতায়েন করা হয়েছে।

নেপাল সরকারের নির্দেশে বলা হয়েছে ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছে, সেজন্য লিপুলেখ সীমান্তে কঠোর নজরদারি করা প্রয়োজন। ‘এনএপিএফ’ ভারত ও চীনের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা পর্যবেক্ষণ করতে সরকারের কাছে দূরগামী টহল দেওয়ার জন্য অনুমতি চেয়েছে।

আরও পড়ুন- আবারও মুখোমুখি ভারত-চীন

সম্প্রতি লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চীন সীমান্ত সংঘর্ষের পর চীন, লিপুলেখ সীমান্তের ওপারে সেনা মোতায়েন শুরু করেছে। তিনটি দেশের সীমান্তে ১৫০ লাইট কম্বাইন্ড আর্মস ব্রিগেডকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। গত জুলাইতে সীমান্ত থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত পালা এলাকায় চীনা সামরিক চৌকিতে সেনা মোতায়েন শুরু হয়। প্রথমে সেখানে এক হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়। পরে সেখানে আরও দু’হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

 

1 মন্তব্য

Leave a Reply