বৃষ্টিতে মোবাইল ভিজে গেলে যা করবেন…

স্মার্টফোনটি বৃষ্টিতে ভিজলে বা পানিতে পড়ে গেলে যত দ্রুত সম্ভব পানি থেকে তুলে ফেলুন। ভুলেও চালু করা যাবে না। এতে খুব সহজেই শর্টসার্কিট হতে পারে। চালু থাকলে বন্ধ করে ফেলতে হবে। সঙ্গে সঙ্গে ব্যাটারি খুলে ফেলুন। এতে মোবাইলের মধ্যে সব বিদ্যুৎপ্রবাহ বন্ধ হয়ে যায়। যদিও এখন বেশির ভাগ স্মার্টফোনেই বিলটিং থাকে। ফোনের সঙ্গে ব্যাটারি যুক্ত রেখে চাল বা গমের বস্তার মধ্যে ঢুকিয়ে রাখুন। অথবা গরম কোনো জায়গা বা রোদে রাখুন। আইডিয়াল টেলিকমের সফটওয়্যার হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ নুর আলম জানালেন, মোবাইলটি ভালো করে শুকান। হালকা বিন্দু পানি থাকলেও সেটি হালকাভাবে মুছবেন, অতিরিক্ত ঝাঁকালে ফোনের একেবারে ভেতরে পানি প্রবেশ করতে পারে। টিস্যু পেপার বা সুতির কাপর ব্যবহার করুন। ফোন চালু হলো ঠিকই। কিন্তু কাজ করছে উল্টাপাল্টা, তাহলে বুঝবেন ভেতরে পানি আছে। এখন আপনার দায়িত্ব সেটাকে সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে যাওয়া।

মনে রাখতে হবে
* ফোনটি ভেজা অবস্থায় ফেলে রাখবেন না, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুকাতে শুরু করুন।
* অতিরিক্ত তাপমাত্রা স্মার্টফোনের জন্য ক্ষতিকর। ধৈর্যের সঙ্গে ফোনটি শুকানোর চেষ্টা করুন। অধৈর্য হয়ে অতিরিক্ত তাপ প্রয়োগ করবেন না।
* ফোনটি শুকানোর আগে কোনো অবস্থাতেই চালু করবেন না। এতে শর্টসার্কিট হয়ে পুরো ফোনটি বাতিল হয়ে যেতে পারে।

ল্যাপটপ বা ট্যাব ভিজলে
ল্যাপটপ পানির কবলে পড়লে পাওয়ার বন্ধ করে ব্যাটারি খুলে পানি শুকিয়ে ফেলতে হবে। পানি শুকালে ল্যাপটপ চালু করে দেখতে হবে। যদি এরপরও কোনো সমস্যা দেখা দেয়, তাহলে নিকটতম কোনো সার্ভিস সেন্টার দেখাতে হবে। একবার পনি ভেতরে ঢুকে গেলে সার্কিট বোর্ড, মাদার বোর্ড, হার্ডডিস্ক সর্টসার্কিট হয়ে আপনার ল্যাপট্যাপটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ট্যাবের ক্ষেত্রেও আপনি একই কাজ করতে পারেন। ট্যাবের ভেতরে পানি ঢুকে গেলে সেটা অবশ্যই সার্ভিস সেন্টারে নেওয়ার পরামর্শ দিলেন রায়ানস আইটি লিমিটেডের হার্ডওয়্যার সুপারভাইজার মেহেদী হাসান।

মনে রাখতে হবে
* টিস্যু পেপার কিংবা শুকনা কাপড় দিয়ে পানি মুছে বা শুষে নেওয়ার চেষ্টা করুন।
* পানি ভালোভাবে শুকানোর জন্য ফ্যানের নিচ দুই থেকে তিন ঘণ্টা রাখুন।
* পানি পুরোপুরি শুকিয়ে গেলেই ল্যাপটপটি চালু করুন।

স্মার্ট ঘড়ি ভিজলে
এখন স্মার্ট ঘড়ির বিভিন্ন ধরনের ব্র্যান্ড ব্যবহার করে থাকেন অনেকে। যার মধ্যে দামি স্মার্ট ঘড়িগুলো পানিনিরোধক হয়ে থাকে। কম দামি স্মার্ট ঘড়ি যেমন ১ হাজার থেকে ২ হাজার টাকা দামের ঘড়িতে পানি ঢোকে।

Leave a Reply