বিয়েবাড়ির

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মধুখালী গ্রামের বিয়েবাড়ির গেটে চাহিদা মাফিক টাকা না দেয়াকে কেন্দ্র করে বর ও কনে পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

শুক্রবার (৪ জুন) বিকেলে উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মধুখালী গ্রামের আব্দুর রহমান ফকিরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুর রহমান ফকিরের ছেলে (বরের ভাই) মোঃ আলমগীর হোসেন জানান, দুই সপ্তাহ আগে তার ভাই মোঃ বাবুল ফকির ওরফে সোয়েবের সাথে পাশের গ্রামের মোরশেদ হাওলাদারের মেয়ে মোসাম্মত অনামিকার বিয়ে হয়। গত বুধবার (২ জুন) বর পক্ষ গিয়ে কনেকে শ্বশুর বাড়িতে নিয়ে আসে। তখন বরপক্ষ থেকে কনে পক্ষের তৈরি করা গেটে দুই হাজার টাকা দিয়েছিল। দুইদিন পর শুক্রবার কনে পক্ষের লোকজন বরের বাড়িতে কনেকে নিতে আসে।

তখন বরপক্ষের তৈরিকৃত গেটে কনেপক্ষ আঠারশত টাকা দিয়ে বাকী আরো টাকা যাবার সময় দেয়ার কথা বলে বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে খাওয়া দাওয়া শেষ করে কনে নিয়ে ফেরার পথে বরপক্ষের লোকজন তাদের বকেয়া টাকা দাবী করেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

ঘটনার সময় উপস্থিত স্থানীয় ইউপি সদস্য সোনা মিয়া জানান, কনেযাত্রী ৩০ জন আসার কথা থাকলেও এসেছিল ৫৪ জন। এ নিয়ে বরপক্ষ এমনিতেই মনক্ষুন্ন ছিল। তিনি জানান, বিশ মিনিট পর নিজেদের ভুল বোঝাবুঝি মীমাংসা হলে বর ও কনেকে নিয়ে বাড়ি ফেরে কনেপক্ষ।

রাঙ্গাবালী থানার ওসি দেওয়ান জগলুল হাসান জানান, লোকমুখে ঘটনা শুনেছি তবে কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।

আরও পরুনঃ- সাতক্ষীরায় লকডাউন শুরু, সড়কে পুলিশ