বিশ্বনাথে

হাওরে মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে সিলেটের বিশ্বনাথে চাউলধনিতে প্রতিপক্ষের গুলিতে সুমেল আহমদ নামের এক যুবক খুন হয়েছে।

ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরো ৩ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়- চৈতননগর গ্রাম থেকে টুকেরবাজার সড়কের সঙ্গে সংযোগ একটি মাটির রাস্তায় মাটি কাটা শুরু করেন একই গ্রামের সাইফুল আলম। এ সময় তিনি অনুমতি না নিয়ে নজির আহমদ নামে স্থানীয় এক কৃষকের ধানি জমি থেকে মাটি কেটে রাস্তা ভরাট করছিলেন সাইফুল আলম।

এক পর্যায়ে নজিরের ভাতিজা সুমেল মিয়া, চাচাতো ভাই মানিক মিয়া ও মনির মিয়া এসে বাধা দিলে তর্ক বাধে। এ সময় সাইফুল আলম গুলি ছুড়লে সুমেল মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন চন্দ্র দাস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল আসলাম, থানার ওসি শামীম মুসা ঘটনাস্থলে গিয়ে উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করে নিয়ন্ত্রণে আনেন।

বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা জানিয়েছেন- এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে চার জনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযানে রয়েছে।