বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে নিহত ৪

বাস-প্রাইভেটকার-সংঘর্ষে
ফাইল ছবি

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলায় বিআরটিসি বাসের সঙ্গে সংঘর্ষের পর একটি প্রাইভেটকার চুরমার হয়ে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শিশুসহ আরও দুইজন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে  রংপুর মহাসড়কের কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের আরডিআরএস বাজারে রংপুর-কুড়িগ্রাম মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন-  চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন

নিহতরা হলেন- নরসিংদী জেলার শিশু পরিবারে কর্মরত সিনিয়র কারিগরি প্রশিক্ষক (টিআই) আকবর হোসেন (৬২), তার স্ত্রী বিলকিস বেগম (৪৫), ছেলে বেলাল হোসেন (২৬) ও প্রাইভেটকারচালক দেলবর হোসেন। আকবর হোসেনের বাড়ি কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের পাঁচপীর গ্রামে।

আহতরা হলেন- আকবর হোসেনের মেয়ে আয়শা সিদ্দিকা (১৪) ও জালাল উদ্দিন নামের একজন।

স্বজন সূত্রে জানা গেছে, আকবর হোসেন স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে চোখের অপারেশন করার জন্য ছুটিতে নিজ গ্রামের বাড়িতে প্রাইভেটকারে ফিরছিলেন।পথিমধ্যে সকালে ওই স্থানে পৌঁছলে তার প্রাইভেটকারের সঙ্গে বিপরীতমুখী একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। এতে করে ঘটনাস্থলে নিহত হন প্রাইভেটকারচালক দেলবর হোসেন।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান আকবর হোসেন, তার স্ত্রী ও ছেলে। গুরুতর আহত হওয়ায় মেয়ে আয়শা সিদ্দিকাকে রংপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে হেলপার অজ্ঞাত (১৩) চিকিৎসাধীন।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রেদওয়ান ফেরদৌস সজীব মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কুড়িগ্রাম সদর থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, হতাহতের ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পর পরই বিআরটিসি বাসচালক পালিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন- বাসচাপায় প্রাণ গেল ৫ জনের

1 মন্তব্য

Leave a Reply