ফ্লোরা লাকী কুপন ড্র

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে জানুয়ারী-জুন’২১ সেমিষ্টারের ফ্লোরা লাকী কুপন ড্র। সম্প্রতি রাজধানীর এসিআই সেন্টারে দিনব্যাপি বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে অংশ নেয় সারাদেশের ১১টি রিজিয়ন থেকে ১১ জন পরিবেশক এবং পাঁচ শতাধিক পরিবেশক। জুম ও ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন তারা। ফ্লোরা লাকী কুপন ড্র’র প্রথম পুরস্কার ইয়ামাহা ব্র্যান্ডের স্যালুটো ব্র্যান্ডের ১২৫ সিসি মোটরসাইকেলটি জিতে নেন রাজশাহী রিজিওনের বানেশ্বর টেরিটরির মেসার্স তানভীর ট্রেডার্স-এর প্রোপ্রাইটর আশরাফুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে এসিআই ক্রপ কেয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুস্মিতা আনিস জুমে সংযুক্ত হয়ে বলেন, ফ্লোরা দেশের খাদ্য উৎপাদন নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। এটি তাদের সকলের জন্য অত্যন্ত গৌরবের। এসময় তিনি বলেন, কৃষকদের লাভের অংক আরো বাড়িয়ে দিতে আমরা এমন একটি পণ্য দিয়ে সহায়তা করছি যা পরিবেশ-বান্ধব ও নিরাপদ ফসল উৎপাদনে অত্যন্ত কার্যকর। কৃষকদের মাঝে সঠিক সময়ে এ পণ্যটি সরবরাহ করছে তাদের সম্মানিত পরিবেশকরা। এক্ষেত্রে তারা যথেষ্ট দায়িত্বের সাথে তাদের কর্তব্য পালন করছেন উল্লেখ করে সকল পরিবেশকদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

এসময় নির্বাহী পরিচালক মি: আর ভেনুগোপাল বলেন, ফ্লোরার মাধ্যমে সবসময় কৃষকের মুখে হাসি দেখতে চান তারা। বিজনেস পার্টনারের মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ে এর প্রসার আরো বৃদ্ধি পাবে এমনটাই আশা করেন তিনি। এসিআই ক্রপ কেয়ার-এর জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) মোঃ আবদুর রহমান-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে পরিবেশকদের উদ্দেশ্যে আরো বক্তব্য রাখেন এসিআই ফর্মূলেশনস্ লি:-এর অপারেশনস ডিরেক্টর ড. মুকতার আহমেদ সরকার, এসিআই ক্রপ কেয়ার-এর হেড অফ রিসার্চ এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট মি: সুবির চৌধুরী, ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার মোঃ হুমায়ুন কবির, ম্যানেজার নিউ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট আবুল হাসান মোস্তফা কামাল, সিনিয়র প্রোডাক্ট ম্যানেজার জামিল আহমেদ, অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রডাক্ট ম্যানেজার (ফ্লোরা) আবু বকর সিদ্দিক প্রমুখ।

দেশ সমাচারের সাথে ফ্লোরা নিয়ে আলাপকালে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রডাক্ট ম্যানেজার আবু বকর সিদ্দিক জানান, দিনদিন জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে আর পাল্লা দিয়ে বাড়ছে জনসংখ্যা। কাজেই উন্নত প্রযুক্তি আর গবেষণাধর্মী পণ্য দিয়ে ফসলের উৎপাদন বাড়াতে হবে। ক্ষেত্র বিশেষে ২০%-২৫% ফসলের ফলন উৎপাদন বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে ফ্লোরা যা দেশের খাদ্য নিরাপত্তার জন্য একটি মাইলফলক। সঠিক সময়ে সঠিক পরিমান হরমোনাল উপাদান মাটি থেকে গ্রহন করতে সহায়তা করে ফ্লোরা। মাটি থেকে সব ধরনের পুস্টি উপাদান গ্রহনে সহায়তা করে এটি। সময় মত প্রয়োজনীয় সব ধরনের হরমোন সংশ্লেষনে সহায়তার পাশাপাশি অধিক ফুল ও ফল আসতে সহায়তা করে। ফুল ও ফল ঝড়া রোধ করে। ফসলের রং ও গুনগত মান বাড়ায়।

এটি পরিবেশ বান্ধব উল্লেখ করে আবু বকর সিদ্দিক বলেন, বর্তমানে ৩১ টি দেশে এটি চলছে। ফ্লোরা কৃষিখাতে বিপ্লব ঘটাতে পারে বলেও জানান তিনি।

র‌্যাফেল ড্রতে মোট ৫০ জন পরিবেশক পুরস্কার জিতে নেন। প্রথম পুরস্কার ইয়ামাহা ব্র্যান্ডের স্যালুটো ব্র্যান্ডের ১২৫ সিসি মোটরসাইকেলটি জিতে নেন রাজশাহী রিজিওনের বানেশ্বর টেরিটরির মেসার্স তানভীর ট্রেডার্স-এর প্রোপ্রাইটর জনাব আশরাফুল ইসলাম। এছাড়া দুইজন দ্বিতীয় পুরস্কার হিসেবে প্রতেকে পান ৫০,০০০/টাকা মূল্যের স্বর্ণের চেইন। তিনজন ৩য় পুরস্কার হিসেবে প্রতেকে পান সনি ব্রাভিয়া ৩২ ইঞ্চি এলইডি স্মার্ট টিভি। চারজনের প্রত্যেকে ৪র্থ পুরস্কার হিসেবে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের ১০ সিএফটি ফ্রিজ, পঞ্চম পুরস্কার হিসেবে পাঁচজনের প্রত্যেকে পান ঢাকা-সেন্টমার্টিন-ঢাকা চার দিন তিন রাত-এর ট্যুর প্যাকেজ। ষষ্ঠ পুরস্কার হিসেবে ৩৫ জন প্রত্যেকে একটি করে স্ট্যান্ড ফ্যান পুরস্কার পান।

পরিবেশকদের পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে চলতি জুলাই-ডিসেম্বর সেমিস্টারে ফ্লোরা লাকী কুপন ড্র অনুষ্ঠিত হবে বলে অনুষ্ঠানে ঘোষণা দেওয়া হয়।

ফ্লোরা বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া, মিশর, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ব্রাজিল, কলম্বিয়া, কেনিয়া, মালয়েশিয়া, মেক্সিকো সহ উন্নত কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহারকারী দেশে সফলতার সাথে ফলন বর্ধক হিসেবে স্বীকৃত। ফ্লোরার যাত্রা শুরু হয় ২০০৩ সালে এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকে ফ্লোরা একটি সেরা পন্য। ফ্লোরার মাধ্যমে এসিআই কৃষকদের সহযোগিতা করছে।