ফ্রান্সের ইস্যুতে যা স্মরণ করিয়ে দিলেন ওজিল

ফ্রান্সের

ফ্রান্সের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বিষয়ক একটি ক্লাসে মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কার্টুন দেখানোর কারণে শিক্ষককে হত্যার ঘটনা এবং এর প্রেক্ষিতে দেশটির প্রেসিডেন্টের বক্তব্য নিয়ে মুসলিম বিশ্বে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে ইসলামকে জড়ানোয় দেশটির ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা শঙ্কিত হয়ে উঠেছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সমালোচনা করছেন মুসলিমরা। এমন সময়ে মুখ খুললেন তুরস্কের মুসলিম পরিবারে জন্ম নেওয়া জার্মানির তারকা ফুটবলার মেসুত ওজিল। ফ্রান্স ইস্যুতে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করে তিনি বলেছেন, সন্ত্রাসবাদকে ইসলাম সমর্থন করে না।

এক টুইটবার্তায় ওজিল লিখেছেন, ‘ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো জায়গা নেই।’ টুইটে একটি ছবিও যুক্ত করেছেন ওজিল। যাতে লেখা আছে পবিত্র কোরানের একটি আয়াত, ‘কেউ কাউকে হত্যা করল সে যেন পৃথিবীর সকল মানুষকে হত্যা করল। আর কেউ একটি প্রাণ রক্ষা করল সে যেন সকল মানুষের প্রাণ রক্ষা করল।’

এর আগে ফরাসি মুসলিম ফুটবল তারকা পল পগবাও নিজের সন্ত্রাসবিরোধী অবস্থান স্পষ্ট করেছিলেন। যদিও তাকে নিয়ে গুজব ছড়িয়েছিল ইংল্যান্ডের একটি পত্রিকা।

মেসুত ওজিল গত ফুটবল বিশ্বকাপের আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানকে জার্সি উপহার দেওয়া আর তার পক্ষে রাজনৈতিক কথা বলায় সমালোচিত হয়েছিলেন। বিশ্বকাপের পর থেকে জাতীয় দলে আর জায়গায় পাননি। এতে তার ক্লাব ক্যারিয়ারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি কাগজে-কলমে এখনো আর্সেনালের খেলোয়াড় হলেও দলে জায়গা পাচ্ছেন না।

আরো পড়ুন-  আজ সাকিবের নিষেধাজ্ঞার শেষ দিন

1 মন্তব্য

Leave a Reply