মালয়েশিয়া প্রবেশে লাগবে না করোনা ইন্স্যুরেন্স ফি
মালয়েশিয়া প্রবেশে লাগবে না করোনা ইন্স্যুরেন্স ফি

দেশে আটকেপড়া প্রবাসীদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশে লাগবে না করোনা অপারেশন (ইন্স্যুরেন্স) ২৬০০ রিঙ্গিত ফি। শুক্রবার দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক নোটিশে এমনটি জানানো হয়েছে।

১৫ নভেম্বর থেকে শুধুমাত্র ৭ দিনের হোটেল ভাড়া ১০৫০ রিঙ্গিত এবং করোনার পিসিআর টেস্ট দুইবার ৫০০ রিঙ্গিত খরচের সঙ্গে যুক্ত হবে এয়ার টিকিটের খরচ।

আরো পড়ুন : রাজধানীর সবুজবাগে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

এর আগে ২৮ অক্টোবর মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন বিভাগের ফেসবুক পেজে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল ১ নভেম্বর থেকে ইমিগ্রেশনের পূর্বানুমতি বা মাই ট্রাভেল পাস (এমটিপি) ছাড়াই মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন অভিবাসীরা।

এক্ষেত্রে যাদের ভিসার মেয়াদ আছে তারা কিছু শর্ত মেনে অনুমতি ছাড়াই দেশটিতে সরাসরি প্রবেশ করতে পারবেন। আর যাদের ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে তারা মাই ট্রাভেল পাসের মাধ্যমে আবেদন করে দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে বিদেশিরা মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে চাইলে দুই ডোজ টিকা সম্পন্নের প্রমাণপত্র, করোনা নেগেটিভ রিপোর্টসহ আসতে হবে। এরপর বিমানবন্দরে স্থাপিত কোয়ারেন্টিন সেন্টারে সাত দিন অবস্থান করতে হবে।

আরো পড়ুন : পটুয়াখালীর দশমিনায় চিনিগুড়া ধানের বাম্পার ফলন

এ সাত দিন কোয়ারেন্টিন সেন্টারের খরচ অভিবাসী কর্মী অথবা তার নিয়োগকর্তাকে বহন করতে হবে এবং যেসব ক্যাটাগরির ভিসা বা পারমিটধারীদের প্রবেশের ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হয়েছে সেগুলো হচ্ছে- কূটনীতিক ভিসাধারী, পিআর পাস, পেরোল পাস, রেসিডেন্ট পাস, স্থায়ী বাসিন্দা ও তাদের পোষ্য, দীর্ঘমেয়াদি পাস (স্বামী/স্ত্রী/সন্তান), সিনিয়র সিটিজেন পাস, পাস বালু, শিক্ষার্থী ভিসা, মাই সেকেন্ড হোম, বিদেশি গৃহকর্মী, রেসিডেন্ট পাস, দীর্ঘ মেয়াদী অস্থায়ী জব পাস (পিএলকেএস), গৃহপরিচারিকা ও ট্যুরিস্ট।