এক্সেলসিওর সুজ

শেয়ারবাজার নিয়ে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পুঁজিবাজারের সামগ্রীক উন্নয় এবং সুশাসনের বিষয়ে আইএমএফের সঙ্গে ফলপ্রসু আলোচনা সম্পন্ন করেছে বিএসইসি।

সভায় পুঁজিবাজারের মাধ্যমে সামষ্টিক অর্থনীতির মূলধন যোগান, সম্ভাবনাময় উদ্যোক্তা তৈরি এবং পুঁজিবাজারে মূলধন প্রবাহ বাড়াতে নতুন ধরনের সিকিউরিটিজ চালু করার বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়।

রোববার (১২ ডিসেম্বর) সভায় বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ এর নেতৃত্বে আইএমএফের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের আবাসিক প্রতিনিধি জয়ন্দু দে এবং ডিভিশন চিফ রাহুল আনন্দসহ ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সাথে ফলপ্রসু আলোচনা সম্পন্ন হয়েছে।

জানা যায়, ফিক্সড ইনকাম সিকিউরিটিজ, বাজারের গভীরতা এবং তারল্য বৃদ্ধি প্রসঙ্গে আলোচনা করা হয়। সভায় বাংলাদেশের সমসাময়িক অর্থনৈতিক সূচক ও মধ্যমেয়াদি প্রক্ষেপণ এবং আর্থিক খাতের উন্নয়ন সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।

আলোচনা সভায় বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ পুঁজিবাজারের উন্নয়নে বিগত এক বছরে কমিশনের সার্বিক কর্মকান্ডের বর্ণনা দেন। এসময় তিনি শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধিমালা সংশোধন এবং প্রণয়নসহ গভর্নেন্স উন্নয়নের জন্য গৃহীত বিবিধ কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন।

এছাড়াও বিএসইসির এই কমিশনার স্বল্পমূলধনী কোম্পানির জন্য আলাদা প্ল্যাটফর্ম চালু, ওটিসি মার্কেটের বিষয়ে নেওয়া পদক্ষেপ, কর্পোরেট বন্ডের মাধ্যমে মূলধন প্রবাহ বৃদ্ধি এবং অধিকতর স্বচ্ছতার জন্য সমভাবে আইনের প্রয়োগের বিষয়ে কমিশনের দৃঢ় মনোভাবের কথা ব্যাক্ত করেন।

এদিকে ফিক্সড ইনকাম সিকিউরিটিজ তথা বন্ড মার্কেটের মাধ্যমে মিউনিসিপাল বন্ড, বিভিন্ন কমিউনিটি বেইজড সেবা খাতের অর্থায়নে বন্ড এবং ইনফ্রাস্ট্রাকচার বন্ডের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড় উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের প্রয়োজনীয় ক্রমবর্ধমান অর্থায়নে কমিশনের আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন এই কমিশনার।