পুঁজিবাজারে পতন

পর পর তিন দিন পতন হলো পুঁজিবাজারের মূল্য সূচকের। গত ২৯ আগস্টের পর এই প্রথম এই ঘটনা ঘটল। আগস্টের শেষে পরপর তিন দিন পতন হয়েছিল আবার গত ৪ এপ্রিলের পর প্রথম।

সপ্তাহের চতুর্থ কর্মদিবসে পুঁজিবাজারের আচরণ বিনিয়োগকারীদেরকে কেবল হতাশ নয়, ভীত করেছে। সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে শুরু হওয়া দর সংশোধন চতুর্থ সপ্তাহে এসে আরও ব্যাপক আকার ধারণ করেছে।

বুধবারের ৬৫ পয়েন্ট পতন গত ১৪ সেপ্টেম্বরের পর সর্বোচ্চ। সেদিন দরপতন হয়েছিল ৭৮ পয়েন্ট। তার আগে ১২ সেপ্টেম্বর পড়েছিল ৫৬ পয়েন্ট। তার আগে ২৭ জুন সূচক পড়েছিল ১০০ পয়েন্ট। ২৩ জুন পড়েছিল ৮০ পয়েন্ট। ৭ জুন পড়েছিল ৫৩ পয়েন্ট। আর ২০ মে পড়েছিল ৬০ পয়েন্ট।

সঙ্গে বড় মূলধনি ওয়ালটন, স্কয়ার ফার্মা, বিকন ফার্মা, রেনাটা, ইউনাইটেড পাওয়ার ও গ্রামীণ ফোনের শেয়ার দর হারানোয় পড়েছে সূচক। এই ১০টি কোম্পানির দরপতনেই সূচক কমেছে ৪৪.২৫ পয়েন্ট।

দিন শেষে ১১২টি কোম্পানির দর বৃদ্ধির বিপরীতে কমেছে ২৪১টির শেয়ার দর। দর ধরে রাখতে পেরেছে কেবল ২৩টি।