পাপুলের বিচার শুরু বৃহস্পতিবার

লক্ষ্মীপুর-২  পাপুল 

অর্থ পাচার ,মানব পাচার, ভিসা বিক্রি, ও ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে কুয়েতে গ্রেফতার বাংলাদেশি সংসদ কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের বিচার শুরু বৃহস্পতিবার।

কুয়েতের পাবলিক প্রসিউকিশন জানিয়েছে ‌চারটি অভিযোগে পাপুলসহ নয়জনের বিরুদ্ধে এদিন আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হবে বলে ।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য পাপুলকে গত ৬ জুন রাতে কুয়েতের মুশরিফ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। মারাফি কুয়েতিয়া কোম্পানির অন্যতম মালিক পাপুলের সেখানে বসবাসের অনুমতি রয়েছে।

তাদের বিরুদ্ধে মূলত চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে- ঘুষ দেয়া, অর্থপাচার, মানবপাচার এবং ভিসার অবৈধ লেনদেন।

তবে তিনি বলেছেন, তিনজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে বন্ধুত্বের নিদর্শনস্বরূপ ৫০ হাজার দিনার বা এক লাখ ৬৩ হাজার ৩৮৮ ডলার তিনি উপহার দিয়েছিলেন।

এর আগে কুয়েতের এই পত্রিকাটি খবর প্রকাশ করে যে, পাপুলের সঙ্গে বিদেশি কর্মীদের পাচারের এসব ঘটনায় কুয়েতের বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী এবং কর্মকর্তাও জড়িত আছেন।

এ মামলায় কুয়েতের আরও দুজন অভিযুক্ত আইনপ্রণেতাও রয়েছেন।

বাংলাদেশের কোনো সংসদ সদস্যকে এর আগে কখনই বিদেশের মাটিতে বিচারের মুখোমুখি হতে হয়নি। কিন্তু পাপুলের বিচার শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার।

আরো পড়ুন- কুয়েতের কারাগারে বাংলাদেশী এমপি

সেই সময় তার প্রতিষ্ঠানের একজন হিসাবরক্ষকসহ আরও কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়।

রিমান্ডে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সর্বশেষ গত ২৪ জুন তাকে ২১ দিনের জন্য কুয়েতের কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

অভিযুক্তদের মধ্যে এমপি পাপুলসহ ছয়জন কারাগারে আছেন। জামিনে রয়েছেন দুই কুয়েতি এমপি এবং একজন পলাতক।

 

2 মন্তব্য

Leave a Reply