ট্রেনে কাটা

ট্রেনে কাটা পড়ে মা ও মেয়ের মৃত্যু হ‌য়ে‌ছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হ‌য়ে‌ছেন বাবা ও ছেলে। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় টাঙ্গাইল সদর উপজেলার হাতিলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, সদর উপজেলার করটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকার আজগর আলীর স্ত্রী সারামণি (২৫) ও তার আড়াই বছরের ছেলে আব্দুর রহমান আইয়ান। এ ঘটনায় নিহত সারাম‌ণির স্বামী ও তার পাঁচ বছরর ছেলে আব্দুল্লাহ আহত হ‌য়ে‌ছে।

স্থানীয়রা জানান, সদর উপজেলার করটিয়া এলাকার প্রবাসী আজগর আলী তার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার পথে সদর উপজেলার হাতিলা এলাকার রেল ক্রসিং পার হওয়ার সময় মোটরসাইকেলটি বন্ধ হয়ে যায়।

এ সময় কুড়িগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনে কাটা প‌ড়ে ঘটনাস্থলেই আজগরের স্ত্রী ও পাঁচ বছরের মেয়ে নিহত হয়। এ সময় গুরুতর আহত হন আজগর ও তার ছেলে আব্দুল্লাহ।

এ‌দি‌কে গুরুতর আহতাবস্থায় আজগর আলী ও আব্দুল্লাহকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজগ‌রের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তা‌কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠা‌নো হয়। আব্দুল্লাহকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

স্থানীয়‌দের জানান, অরক্ষিত এই রেল ক্রসিং‌য়ের দুই পাশ জঙ্গল হয়ে থাকায় ট্রেন আসছে কি-না দেখা যায় না। ফলে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত মে‌ডি‌কেল অ‌ফিসার ডা. রাজিব পাল চৌধুরী ব‌লেন, হাসপাতালে দুজনকে আনা হ‌য়ে‌ছিল। এ‌দের মধ্যে আজগর আলীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হ‌য়ে‌ছে। এ সময় তার শিশু সন্তান‌কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছে‌ড়ে দেওয়া হ‌য়ে‌ছে।

টাঙ্গাইলের ঘারিন্দা রেল‌স্টেশন মাস্টার সোহেল খান বলেন, কুড়িগ্রাম থে‌কে ছে‌ড়ে আসা কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা যাওয়ার সময় ওই ট্রেনে কাটা পড়ে দুজন মারা গে‌ছেন। প‌রে খবর পে‌য়ে স্বজনরা তা‌দের লাশ নিয়ে গে‌ছেন।

আরো পড়ুন : আয়াল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের মূলপর্বে নামিবিয়া

ভিজিট করুন : https://www.facebook.com/Desh.Shamachar