বাংলাদেশের সকল অনলাইন প্লাটফর্ম থেকে টিকটক, বিগো লাইভ, পাবজি, ফ্রি ফায়ার গেম তথা লাইকি’র মত সকল প্রকার অনলাইন গেম এবং অ্যাপ অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির পল্লব এবং ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাউছার।

আজ (১৯ জুন) মানবাধিকার সংগঠন ল এন্ড লাইফ ফাউন্ডেশনের পক্ষে উপরোক্ত গেম এবং অ্যাপ গুলোর ক্ষতিকারক দিক তুলে ধরে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, শিক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, স্বাস্থ্য সচিব এবং পুলিশের আইজি বরাবর জনস্বার্থে ইমেইল যোগে নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশ গ্রহীতাদের ৪৮ ঘণ্টা সময় দেয়া হয়েছে এই বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিয়ে ল এন্ড লাইফ ফাউন্ডেশনকে জানাবার জন্য। অন্যথায় জনস্বার্থে হাইকোর্টে রিট দায়ের করে যথাযথ আইনি পদক্ষেপ নেবেন বলে নোটিশে জানানো হয়েছে।

নোটিশে উল্লেখ করা হয় পাবজি এবং ফ্রি ফায়ার এর মত অনলাইন গেমে বাংলাদেশের যুব সমাজ এবং শিশু-কিশোররা ব্যাপকভাবে আসক্ত হয়ে পড়েছে। ফলে সামাজিক মূল্যবোধ, শিক্ষা-সংস্কৃতি বিনষ্ট হচ্ছে এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্ম হয়ে পড়ছে মেধাহীন। এসব গেম যুব সমাজের সহিংসতা প্রশিক্ষণের এক কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছে।

অন্যদিকে টিকটক, লাইকি ইত্যাদি অ্যাপ ব্যবহার করে দেশের শিশু-কিশোর এবং যুব সমাজ বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হচ্ছে। অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে এবং সারাদেশে কিশোর গ্যাং কালচার তৈরি হচ্ছে । টিকটক অনুসারীরা বিভিন্ন গোপনীয় জায়গায় পুল পার্টির নামে অনৈতিক বিনোদনে লিপ্ত হচ্ছে। এছাড়াও সম্প্রতি নারী পাচারের ঘটনা এবং বাংলাদেশ থেকে দেশের বাইরে অর্থ পাচারের ঘটনায়ও টিকটক, লাইকি এবং বিগো লাইভ এর মাধ্যমে চলছে, যা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক এবং দেশের আইন-শৃঙ্খলা ও জনস্বার্থের পরিপন্থী।