জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল খারাপ হওয়ায় অভিমান করে দিনাজপুরের বিরামপুরে তাপসি তির্গা (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলায় কাটলা ইউনিয়নের চৌঘুরিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।নিহত তাপসি তির্গা ওই গ্রামের নরেশ তির্গার মেয়ে। সে স্থানীয় কাটলা উচ্চবিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষা দেয়। নিহত ছাত্রী পরীক্ষায় ২.৭৯ গ্রেডে উত্তীর্ণ হয়েছে। 

বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় কাটলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজির হোসেন জানান, মঙ্গলবার দুপুরে জেএসসি পরীক্ষায় ফলাফল প্রকাশের পর ওই ছাত্রীর ফলাফল খারাপ হয়। পরে ওই ছাত্রী বাড়িতে সবার অগোচরে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে  আত্মহত্যা করে।

বিরামপুর থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান মনির বলেন, আত্মহত্যার খবর পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।