জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আলেক্সেই নাভালনি। 

অবস্থার
আলেক্সেই নাভালনি। ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার বিরোধী দলীয় নেতা আলেক্সেই নাভালনিকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে।  ফ্লাইটে ওঠার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার অবস্থা এতই খারাপ হয়েছে যে সাইবেরিয়ার একটি হাসপাতালে কোমায় রাখা হয়েছে।  তাকে ভেন্টিলেটরের মাধ্যমে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা আলেক্সাইর মুখপাত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে

নাভালনির মুখপাত্র কিরা ইয়ারমিশ জানান, সাইবেরিয়া থেকে মস্কোতে ফিরছিলেন ৪৪ বছরের বিরোধী দলের নেতা নাভালনি। হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বহনকারী বিমান জরুরি অবতরণ করে।

তাকে সাইবেরিয়া শহরে একটি হাসপাতালে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। আইসিইউতে তার অবস্থা নিয়ে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তারা বলছেন, তার অবস্থা স্থিতিশীল তবে তার জীবন ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।  আমরা তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করছি।

টুইটারে ইয়ারমিশ লিখেছেন, ‘অ্যালেক্সেইকে বিষাক্ত কিছু প্রয়োগ করা হয়েছে। এখন তিনি আইসিইউতে। আমরা মনে করছি তার চায়ের সঙ্গে বিষাক্ত কিছু মেশানো হয়েছে। সকালে শুধু তিনি চা খেয়েছিলেন। গরম পানীয়র সঙ্গে দ্রুত বিষ মিশে গেছে বলছে ডাক্তাররা।’ অ্যালেক্সেইর জ্ঞান এখনও ফেরেনি। ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে তাকে। পুলিশকে ডাকা হয়েছে হাসপাতালে।

এর আগে তাকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছিল।  ২০১১ সালের সাধারণ নির্বাচনে পুতিনের বিরুদ্ধে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে প্রতিবাদ করায় গ্রেপ্তার হন তিনি এবং ১৫ দিন জেল খাটেন।

২০১৭ সালে তার ওপর অ্যান্টিসেপটিক রঙ দিয়ে রাসায়নিক হামলা চালালে গুরুতর আহত হন নাভালনি।

আরও পড়ুন- বেলারুশের প্রেসিডেন্টকে সমর্থন দিলেন পুতিন

1 মন্তব্য

Leave a Reply