জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে সৌদির পরাজয়

জাতিসংঘ

সৌদি আরব মারাত্মক রকমের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে স্থান দেয়া হয়নি।

মানবাধিকার লঙ্ঘনের কারেছে, এমন অভিযোগে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের সৌদি আরবকে আসন না দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানানো পর সৌদির আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার হিউম্যান রাইটস ওয়াচ জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর প্রতি সৌদি আরবের বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিল।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছিল, ‘সৌদি আরবের পক্ষ থেকে ব্যাপকভাবে মানবাধিকার লংঘন করা হয় এবং মানবাধিকার কর্মী ও দেশটির রাজনৈতিক ভিন্নমতাবলম্বীদের বিরুদ্ধে মারাত্মক দমন পীড়ন চালানো হয়।’

সৌদি আরবকে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সিরিয়াল মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী দেশ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এদিকে সৌদির বিরুদ্ধে এ সমস্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটি জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে দেয়া তহবিল প্রত্যাহারের হুমকি দিয়েছে।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরব ইয়েমেনে সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে এবং তাতে এ পর্যন্ত ৭ হাজার ২০০ শিশু নিহত কিংবা আহত হয়েছে। এই প্রসঙ্গটি উল্লেখ করে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের জাতিসংঘ বিষয়ক পরিচালক লুইস চার্বোনিউ বলেছেন, শিশু হত্যাকারীরা মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হতে পারে না।
সূত্রঃ পার্সটুডে

আরও পড়ুন :-  ইয়েমেনে ৪০ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুহারা

 

Leave a Reply