প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যান-এমডির নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

চেক ডিসঅনার মামলায়

চেক ডিসঅনার মামলায় এবি ব্যাংকের ঋণ খেলাপি গ্রাহক প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এমডিসহ তিন পরিচালকের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

গত মঙ্গলবার রাতে গুলশান থানার এসআই ফেরদৌস এবং এসআই ফারুক প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যানের বাসায় গ্রেপ্তারে জন্য অভিযানে গেলে জানা যায় এরইমধ্যে কানাডায় পালিয়ে গেছে প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন এবং তার পরিবার। প্যারাডাইস গ্রুপের এমডি করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন বলে জানায় তার বাসার কর্মচারী।

এবি ব্যাংকে প্রায় ২০০ কোটি টাকা খেলাপি ঋণ রয়েছে প্যারাডাইস গ্রুপভুক্ত দুইটি প্রতিষ্ঠানে নামে। ওই ঋণ পরিশোধ না করায় মঙ্গলবার প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ও তার স্ত্রী মাহবুবা মোশাররফ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মজিবর রহমান, পরিচালক মনিয়ার হোসের ও মোবারক হোসেনের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

ব্যাংক সূত্র জানা গেছে, ৩১ আগস্ট পর্যন্ত এবি ব্যাংকে প্যারাডাইস স্পিনিং মিলের নামে খেলাপি ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে ১২৩ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। একই সময়ে প্যারাডাইস কেবলসের খেলাপি ঋণের স্থিতি দাঁড়ায় ৭৫ কোটি ২০ লাখ টাকা।

এই টাকা আদায়ে গেত ২৫ জুন এবং ২৩ জুলাই দুইটি নিলামের আয়োজন করে এবি ব্যাংক। একই সাথে টাকা আদায়ে গত ২১ জুন নেগোশিয়েবল ইন্সট্রুমেন্ট এর আওতায় চেক ডিসঅনার এর ফৌজদারি মামলা করে এবি ব্যাংক। চেক ডিসঅনার মামলায় প্যারাডাইস গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ কয়েকজন পরিচালকের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

Leave a Reply