চট্টগ্রাম বন্দরের কার্যক্রম

দেশের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সচল রাখতে বন্দরের কার্যক্রম কঠোর লকডাউনেও চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। একইভাবে ১৯টি বেসরকারি ডিপোতেও সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলবে বন্দরের সব ধরণের কর্মযজ্ঞ।

মঙ্গলবার বন্দর কর্তৃপক্ষ বন্দর ব্যবহারকারী, সিঅ্যান্ডএফ, শিপিং এজেন্টসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠক করে এসব সিদ্ধান্ত জানায়। স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল (বিএন) মোহাম্মদ শাহজাহান।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে কর্মকর্তা-কর্মচারী, বার্থ অপারেটর, টার্মিনাল অপারেটর, শিপ হ্যান্ডেলিং অপারেটর, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট, ফ্রেইট ফরোয়ার্ডার, বিকডা, শিপিং এজেন্ট, শ্রমিকসহ সকল স্টেকহোল্ডারে যৌথ প্রচেষ্টায় বন্দরের কার্যক্রম চালু থাকবে। এতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ প্রশাসনে সহযোগিতাও প্রয়োজন।

জানানো হয় পুরোদমে অপারেশনাল এবং খালাসের কাজ ও ডেলিভারি চলবে। এরজন্য বন্দর কর্মীদের ৭টি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। অপারেশনাল কর্মীরা এক সপ্তাহ কাজ করার পর ৪ দিন ছুটিতে থাকবে। যদি কারো করোনা ধরা পড়ে বা অসুস্থ হয় তখন ডিউটিতে থাকা সবাই কোয়ারেন্টাইনে থাকবে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের জন্য নিয়মিত মোবাইল কোটও পরিচালনা করবে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

আরো পড়ুন- চলতি সপ্তাহেই ২৫ লাখ ডোজ পাবে বাংলাদেশ