শাবিপ্রবি ছাত্রীর আত্মহত্যা

গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, আমরা বিষয়টি অবগত হয়েছি। তার বাড়িতে গিয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। লাশের ময়নাতদন্ত করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে আলাপ করছি। আর সেখানকার পরিস্থিতি বুঝে আমরা ব্যবস্থা নেব।

মৃত আছিয়া আক্তার বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাড়ি বগুড়া সদরের নামুজা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মথুরা গ্রামে।

কি কারণে আত্মহত্যা করেছে এ বিষয়ে কিছু এখনো জানা যায়নি। তবে তিনি কিছুদিন থেকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন বলে জানা গেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ‘সকালে ফজরের নামাজের পর আছিয়ার মা ঘরের বারান্দাতে তার ঝুলন্ত লাশ পান। এলাকার এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল আছিয়ার। যা নিয়ে বাড়িতে বেশ কিছু দিন থেকে পরিবারের সবাই আছিয়ার সঙ্গে কথাবার্তা বলছিল। এ নিয়ে মানসিকভাবে বেশ চাপে ছিলেন তিনি।’

আরো পড়ুন- ইবির নতুন ভিসি হলেন আবদুস সালাম

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আবু হেনা পহিল বলেন, ‘বিষয়টা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি স্যার ও বিভাগের শিক্ষকেরাও কথা বলতেছে। আর পুলিশও খোঁজখবর নিচ্ছে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানার জন্য।’

Leave a Reply