কুষ্টিয়ায় ছাত্রী ধর্ষণ অভিযোগে মাদ্রাসা সুপার গ্রেপ্তার

ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে

কুষ্টিয়ার মিরপুরের একটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির এক আবাসিক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা সুপারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে মিরপুর থানা পুলিশ

এর আগের দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় মিরপুর থানায় তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ অভিযোগের মামলা করেন ছাত্রীর বাবা।

পুলিশ জানায়, নির্যাতিতা ওই মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রী সপ্তাহের ৬ দিন ওই মাদ্রাসায় থাকতেন। প্রতি শুক্রবার সকালে তার বাবা তাকে বাড়ি নিয়ে যেতেন, আবার শনিবার সকালে পৌঁছে দিতেন মাদ্রাসায়। গত শনিবার সকালে মেয়েটির বাবা তাকে মাদ্রাসায় পৌঁছে দেন। পরে ভোর রাতে ফজরের নামাজের সময় মাদ্রাসার সুপার ম্ওালানা আব্দুল কাদের (৪২) মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। রাত ৮টার দিকে মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে দ্বিতীয় দফা ধর্ষণ করেন তিনি। সুপার বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য মেয়েটিকে শাসিয়েও দেন। তবে মেয়েটি সোমবার সকালে তার এক সহপাঠীকে বিষয়টি জানায়। ওই সহপাঠী ঘটনাটি নিজের বাবাকে জানালে তা এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়।

আরও পড়ুন- কিশোরগঞ্জে রহমান হত্যায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, সোমবার বিকেলে নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীর বাবার করা ধর্ষণ অভিযোগের মামলায় একমাত্র আসামি মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুল কাদেরকে রাতেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করলে সেখানে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করেছেন।

2 মন্তব্য

Leave a Reply