যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন

কক্সবাজারে শরণার্থী শিবিরে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ ‘হত্যার’ ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে।

বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন বলেন, বিশ্বে রোহিঙ্গা মুসলমানের মানবাধিকার রক্ষায় সাহসী যোদ্ধা ছিলেন মুহিবুল্লাহ। গত ২৯ সেপ্টেম্বর খুন হওয়া রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ জেনেভায় মানবাধিকার কাউন্সিল এবং ২০১৯ সালে ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ে মন্ত্রিপর্যায়ের বৈঠকে কথা বলতে যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন।

তার সফরের সময় প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তার অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন। আমরা তার মৃত্যুর ঘটনার পূর্ণাঙ্গ ও স্বচ্ছ তদন্তের আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত গত বুধবার রাতে কক্সবাজারের উখিয়ার লম্বাশিয়া ক্যাম্পে সশস্ত্র একদল লোক রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে এলোপাতাড়ি গুলি করে পালিয়ে যায়। এর পর তাকে উদ্ধার করে ক্যাম্পের একটি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।