ওষুধ

(কোভিড-১৯) চিকিৎসায় মুখে খাওয়ার ওষুধ ‘মলনুপিরাভির’। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ও ট্রান্সকম গ্রুপের ওষুধ কোম্পানি এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) এই ওষুধের বাজারজাত শুরু করেছে।

অন্যদিকে আরেকটি তালিকাভুক্ত কোম্পানি স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস বুধবার থেকে ‘মলনুপিরাভির’ বাজারজাত করবে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান  জানিয়েছেন, দেশে করোনার চিকিৎসায় ঔষধটির জরুরি ব্যবহার ও উৎপাদনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আর প্রাথমিকভাবে তিনটি কোম্পানিকে দেওয়া হয়েছে এই ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের অনুমতি।

তিনি আরও বলেন, মোট ১০টি কোম্পানি মলনুপিরাভির বাজারজাতকরণের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছে। বাকীদেরকেও পর্যায়ক্রমে অনুমোদন দেওয়া হতে পারে।  বাকী কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রেনাটা লিমিটেড, বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ও একমি ফার্মাসিউটিক্যালস। অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে-পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস, জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যালস, ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস ও হেলথকেয়ার।

মলনুপিরাভির হচ্ছে একটি ট্যাবলেট বা বড়ি। করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এই ঔষধটি দিনে দুইবার ঝুঁকিপূর্ণ রোগীদেরকে দেয়া হয়। ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল অনুযায়ী, এই ঔষধটি রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেক কমিয়ে দেয়। করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এটাই প্রথম ঔষধ যেটি শিরায় প্রয়োগ নয় বরং মুখে সেবন করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মার্ক, শার্প এন্ড ডোম (এমএসডি) এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস-এর তৈরি করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এটিই মুখে খাওয়ার প্রথম ঔষধ।