ওমরাহ পালনের বয়সসীমা

বিদেশিদের ওমরাহ পালনের বয়সসীমা ১৮ ও তদুর্ধ নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে সৌদি আরবের হারামাইন শরিফাইন কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানায়। সৌদি আরবে ভ্রমণ ইচ্ছুকদের জন্যও একই বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে, দেশটিতে বসবাসকারীদের ক্ষেত্রে ১২ বছর ও তদুর্ধ করা হয়েছে।

হারামাইন শরীফাইন কর্তৃপক্ষ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি পরিষ্কার করায় বিদেশি ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক মুসলমানরা সংশয় মুক্ত হলেন। সর্বোচ্চ বয়সের কোনো সীমা নেই। করোনাকালের পর প্রথম যখন ওমরাহ খুলে দেওয়া হয়েছে ছিল তখন পঞ্চাশ বছর নির্ধারণ ছিল, এরপরে ষাট। এখন সেই সিদ্ধান্তেরও পরিবর্তন হয়েছে।

শারীরিক এবং আর্থিকভাবে সক্ষম এই বয়সসীমার ব্যাক্তিদের ওমরাহ পালনে কোন বাধা নেই । কোভিড-১৯ ভ্যকসিন দুই ডোজ নেওয়া থাকলে ওমরাহ ভিসার আবেদন করা যাবে।

উল্লেখ্য, গত কিছুদিন আগে মিসরভিত্তিক একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ প্রকাশ করেছিলো, শুধুমাত্র ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সিরাই ওমরাহ পালন করতে পারবেন। সংবাদটি বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমে প্রচার হয়।

এরপর থেকে প্রকৃত বিষয়টি জানার জন্য বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা অপেক্ষায় ছিলেন। হারামাইন শরিফাইন কর্তৃপক্ষের এই ঘোষণার পর সেই অনলাইনের বিতর্কিত সংবাদটি যে গুজব ছিল তা পরিষ্কার হলো।