ইস্তানবুলে তৈরি হচ্ছে নতুন এক বিমানবন্দর, যাকে পৃথিবীর বৃহত্তম বিমানবন্দর বলছে তুরস্ক। এছাড়া পৃথিবীতে আরো অনেকগুলো বিমানবন্দর রয়েছে।

আসুন এক নজরে দেখে নেই বিশ্বের বৃহত্তম বিমানবন্দরগুলো।

হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন এয়ারপোর্ট, আটলান্টা, যুক্তরাষ্ট্র

যাত্রী সংখ্যার বিচারে আটলান্টাকে কেউ পেছনে ফেলতে পারবে না৷ ২০১৭ সালে প্রায় ১০ কোটি ৪০ লাখ মানুষ এই বিমানবন্দর দিয়ে যাতায়াত করেছেন৷ অন্য কেউ ১০ কোটি পর্যন্তই পৌঁছাতে পারেনি৷

বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন

এই বিমানবন্দর ২০১৭ সালে ব্যবহার করেছেন ৯ কোটি ৫৮ লাখ মানুষ৷ ২০০৮ অলিম্পিকের আগে তৈরি করা হয়েছিল এই বিমানবন্দরটি৷

দুবাই ইন্টারন্যাশনার এয়ারপোর্ট, আরব আমিরাত

২০১৭ সালে দুবাই বিমানবন্দর ব্যবহার করেছেন ৮ কোটি ৮০ লাখেরও বেশি মানুষ৷ মজার ব্যাপার হলো, এর মধ্যে ৮ কোটি ৭৭ লাখ মানুষই আরবের নন৷ অনেকেই এই বিমানবন্দরে শপিং করতে ভালোবাসেন৷

টোকিও হানেদা এয়ারপোর্ট, জাপান

জাপানের রাজধানী টোকিও’র এই বিমানবন্দরটি বছরে প্রায় ৮ কোটি ৫৪ লাখ মানুষ ব্যবহার করেন৷

টোকিও হানেদা এয়ারপোর্ট, জাপান

জাপানের রাজধানী টোকিও’র এই বিমানবন্দরটি বছরে প্রায় ৮ কোটি ৫৪ লাখ মানুষ ব্যবহার করেন৷

ও’হারে ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, শিকাগো, যুক্তরাষ্ট্র

শিকাগোতেও শান্তি নেই জার্মান ফুটবল তারকা বাস্টিয়ান শোয়াইনস্টাইগারের ফ্যানদের৷ কারণ, শিকাগো ফায়ারে যোগ দেয়া এই সাবেক বায়ার্ন ও ম্যানইউ তারকাকে বিমানবন্দরে খুঁজে পেতেই খবর হয়ে যাবে৷ কারণ, এই বিমানবন্দর দিয়ে চলাফেরা করা ৭ কোটি ৯৮ লাখ যাত্রীর একজন তিনি৷

লন্ডন হিথ্রো, যুক্তরাজ্য

লন্ডনের সবচেয়ে ব্যস্ত বিমানবন্দর হিথ্রো৷ ফি বছর এখান থেকে ৭ কোটি ৮০ লাখ মানুষ বিমানে ওঠানামা করেন৷ আর মাত্র দু’টি রানওয়ে দিয়েই বিমানবন্দরটি তা ম্যানেজ করে৷

হংকং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন

২০১৭ সালে এই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছেন ৭ কোটি ২৬ লাখ ৭০ হাজার যাত্রী৷

সাংহাই পুদং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন

সাংহাইয়ে দু’টি বড় এয়ারপোর্ট আছে৷ এর একটি এই পুদং৷ এখানে বছরে ৭ কোটি যাত্রী বিমানে ওঠানামা করেন।