ই-অরেঞ্জ

ই-অরেঞ্জের মালিক পুলিশ সদস্য সোহেলের সকল সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে ভুক্তভোগীদের অর্থ ফিরিয়ে দেয়ার দাবি করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে গ্রাহকরা।এসময় তারা বিক্ষোভের চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে তাদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশ ও গ্রাহকদের মধ্যে বেশ কয়েকজন আহত হয়।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন শেষে তারা সড়কে নেমে বিক্ষোভের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়। এসময় পুলিশির সাথে বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে পুলিশ ও গ্রাহকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় পুলিশ বিক্ষুব্ধ ই-অরেঞ্জ গ্রাহকদের ধাওয়া দিয়ে ও লাঠিপেটা করে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়।

ই অরেঞ্জ যেহেতু অরেঞ্জ বাংলাদেশের সিস্টার কনসার্ন তাই ভুক্তভোগীদের সকল দায় মূল প্রতিষ্ঠানকে নিতে হবে বলেও জানান তারা। ই-অরেঞ্জ সংক্রান্ত সকল মামলা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নিষ্পত্তির দাবিও করেন তারা। একই সাথে বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান না আসা পর্যন্ত সকল আসামিদের জামিন আবেদন নাকচ করার আহ্বান জানানো হয় মানববন্ধন থেকে।